ভারতের বৈচিত্র‌্য দেখে মুগ্ধ রোডস

চেন্নাই : অবসরের পর ভারতকে নতুন করে চিনেছেন জন্টি রোডস। এই প্রোটিয়া তারকার মতে, ভারতের বৈচিত্র‌্য তাঁকে মুগ্ধ করেছে। জীবনের আধ্যাত্মিক দিকেও এই বৈচিত্র‌্য প্রভাব ফেলে বলে মনে করেন তিনি।

ক্রিকেটার হিসেবে বহুবার ভারতে এলেও দেশটা সেভাবে দেখা হয়নি রোডসের। তার কারণ হিসেবে তিনি বলেছেন, ক্রিকেটার হিসেবে ঘোরাফেরা এয়ারপোর্ট, হোটেল আর স্টেডিয়ামের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকত। আর সেসময় এর বাইরে যাওয়ার খুব একটা ইচ্ছেও থাকে না। কিন্তু অবসরের পর পরিস্থিতি অনেকটাই বদলে যায়। ভারতে ইচ্ছেমতো ঘোরার সুযোগ পান। এ প্রসঙ্গে তাঁর বক্তব্য, ভারতের বিভিন্ন অংশে যে বৈচিত্র‌্য রয়েছে, তা এককথায় অসাধারণ। এই বৈচিত্র ঘুরে দেখার সুযোগ পেয়ে নিজেকে ভাগ্যবান মনে হচ্ছে। তবে আপনি যতবার ভারতে আসবেন, নতুন কোনও বিষয় আপনাকে সারপ্রাইজ দেবে। বাইকে চেপে ভারতে ঘোরার ইচ্ছে রয়েছে রোডসের। তাঁর কথায়, শনিবার বা রবিবারগুলিতে রাইডারদের সঙ্গে নিজের বাইক নিয়ে ঘোরার ইচ্ছে রয়েছে। এভাবে যতটা সম্ভব ভারত দর্শন করতে চাই।

- Advertisement -

ভারতীয় খাবারেরও প্রেমে পড়েছেন রোডস। ক্রিকেটার হিসেবে সুযোগ না পেলেও এখন ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে গিয়ে স্থানীয় খাবার চেখে দেখেন। তাঁর কথায়, খেলোয়াড় জীবনে ফিটনেস ও স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রাখতে হত। ফলে নতুন কোনও অপরিচিত খাবারের দিকে হাত বাড়াতে পারতাম না। কিন্তু এখন সেই বাধ্যবাধকতা নেই। তাই খাবার নিয়ে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করি। কারণ, এখন পেট বা শরীর খারাপ নিয়ে তেমন কোনও ভয় নেই। তবে নাচ না জানায় ভারতীয় সিনেমায় মুখ দেখানোর ইচ্ছে নেই রোডসের।