জলের পাইপ দিয়ে গড়িয়ে পড়ছে রক্ত, বাবা মা ও মেয়ের দেহ উদ্ধার লিলুয়ায়

55

হাওড়া: স্বামী-স্ত্রী ও মেয়ের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হল লিলুয়ার বেলগাছিয়াতে। এক সঙ্গে একই পরিবারের তিনজনের রহস্যজনক মৃত্যুতে শনিবার এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। বাড়ি থেকে দুর্গন্ধ পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয় বাসিন্দারা। পুলিশ খবর পেয়ে এসে বাড়ির তালা ভেঙে দেখতে পায় তিনজনের দেহ সিলিং থেকে ঝুলছে। ঘটনাস্থল থেকে অভিজিৎ দাস ও তাঁর স্ত্রী দেবযানী দাস ( ৪২) ও তাঁদের মেয়ে সম্রাজ্ঞী দাসের(১৪) দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়।

পুলিশ সূত্রের খবর, বুধবার নাগাদ তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, ওয়েল্ডিং এবং রান্নার গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যবসা করতেন অভিজিৎ। পাড়ায় সবার সঙ্গেই সুসম্পর্ক ছিল তাঁর। পরিবারে স্ত্রী, মেয়ে ছাড়াও ছিলেন তাঁর মা ও কাকা। একই বাড়িতে থাকতেন তাঁরা। মঙ্গলবার থেকে অভিজিৎবাবু এবং তাঁর পরিবারের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। শনিবার দুপুরে তাঁদের বাড়ি থেকে দুর্গন্ধ পান প্রতিবেশীরা। রেইন পাইপ দিয়ে রক্তর স্রোত বের হতে দেখা যায়। তার পরই পুলিশকে ফোন করেন প্রতিবেশীরা। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, পারিবারিক ও ব্যবসায়িক সমস্যার জেরেই সপরিবারে আত্মঘাতী হন তাঁরা। তবে মৃত্যুর অন্যান্য কারণও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

- Advertisement -