ভোট পরবর্তী হিংসা মামলা, গোপন রিপোর্ট জমা পড়ল কলকাতা হাইকোর্টে

149

কলকাতা: ভোট পরবর্তী হিংসার মামলায় কলকাতা হাইকোর্টে খামবন্দি রিপোর্ট দিল জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। আগামী শুক্রবার ফের মামলাটি শুনানি হবে। এবিষয়ে মামলাকারী আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল জানান, ‘জাতীয় মানবাধিকার কমিশন যে রিপোর্ট এদিন কলকাতা হাইকোর্টে ফাইল করেছে তা চূড়ান্ত রিপোর্ট নয়। এটা একটি অন্তর্বর্তী রিপোর্ট। কারণ এখনও রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় পৌঁছোতে পারেননি জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্যরা। ২ জুলাইয়ের মধ্যে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের তরফে চূড়ান্ত রিপোর্ট পেশ করা হবে আদালততে। সেদিনই মামলার পরবর্তী শুনানি।’

ভোট পরবর্তী হিংসার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট। সেই কমিটিতে রয়েছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশন, রাজ্য মানবাধিকার কমিশন ও রাজ্য লিগ্যাল সার্ভিস অথরিটির সদস্যরা। প্রাথমিকভাবে দেখা যায় আক্রান্ত মানুষ কেন্দ্রীয় মানবাধিকার কমিশনে কয়েকশো অভিযোগ জানালেও রাজ্য মানবাধিকার কমিশনে একটিও অভিযোগ জমা পড়েনি। ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। রাজ্য অস্বীকার করলেও হিংসার ঘটনা ঘটেছে এবং রাজ্য প্রশাসন পুলিশ যথাযথ ব্যবস্থা নেয়নি বলে ক্ষোভ প্রকাশ করে হাইকোর্ট। এরপর ১৮ জুন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে কমিটি গঠন করে রাজ্যের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেওয়া হয়। নির্দেশে বলা হয় রাজ্য সহযোগিতা করবে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে। অন্যথা করলে আদালত অবমাননার দায় নিতে হবে রাজ্যকে। এরপরই প্রাক্তন গোয়েন্দা প্রধান রাজীব জৈনের নেতৃত্বে একটি কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল রাজ্যের বিভিন্ন জেলা ঘুরে আক্রান্ত মানুষদের সাথে কথা বলে তৈরি করে রিপোর্ট। সেই রিপোর্টই এদিন গোপন খামবন্দি হয়ে জমা পড়েছে আদালতে।

- Advertisement -