প্রকৃতিপ্রেমী সাদিমান আজ সুপারম্যান! জানুন কেন…

89

জাভা: সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে একজনও এগিয়ে আসেননি। মেলেনি সরকারি সাহায্যও। তবুও হার মানেননি। অদম্য জেদের বশে একাই লড়ে গিয়েছেন প্রায় দুই দশকের বেশি সময় ধরে। এই সময়কালে খরচ করেছেন গ্যাটের কড়ি। পাশাপাশি বাড়ির গবাদি পশু বিক্রি করতেও দ্বিতীয়বার ভাবেননি তিনি। অবশেষে মিলল সফলতা। এক সময়ে রুক্ষ জমি আজ সবুজ পূর্ণ। তাও এক বা দুই বিঘা নয়, প্রায় আড়াইশো হেক্টর জমিকে অরণ্যে পরিণত করেছেন একান্ত উদ্যেগে। তিনি ইন্দোনেশিয়ার বাসিন্দা সাদিমান।

সাদিমান এখন সুপারম্যান হিসেবে পরিচিত একাধিক দেশের পরিবেশ প্রেমী মানুষের কাছে। তিনি জানিয়েছেন, ১৯৬০ সালে ইন্দোনেশিয়ার জাভায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের জেরে কয়েকশো দেবদারু গাছ পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ফলে ওই এলাকা একেবারে রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে ওঠে। ক্ষরার পরিস্থিতি দেখা দেয়। বিষয়টি ভাবিয়ে তোলে সাদিমানকে। সিদ্ধান্ত নেন রুক্ষ এলাকাকে সবুজে মুড়ে ফেলবেন। যা ভাবা তাই কাজ। একান্ত উদ্যোগে শুরু করেন সবুজের অভিযান। শুরুতে পাগল আখ্যা পেতে হয়েছিল তাঁকে। কিন্তু দমে যাননি সাদিমান। বছর ২৪ ধরে নিরলস প্রচেষ্টার মাধ্যমে নিজের স্বপ্নকে বাস্তব রূপ দেন তিনি।

- Advertisement -

এই দীর্ঘ সময়কালে প্রায় ১১ হাজার গাছের চারা লাগিয়েছেন তিনি। এরপরেই রুক্ষ জমি ক্রমেই সবুজের ভরে উঠতে শুরু করে। মিটে গিয়েছে জলের সমস্য়াও। এরপরেই গ্রামের মানুষেরা সাদিমানকে সুপারম্যান আখ্যা দিয়ে বসেন। অন্যদিকে, এহেন কর্মকাণ্ডের জন্য কল্পতরু পুরস্কার ছিনিয়ে নেন তিনি।