জলপাইগুড়ি, ১০ ডিসেম্বরঃ দুটি পৃথক ঘটনায় উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন নিগম (এনবিএসটিসি)-এর বাসে ভাঙচুর এবং কনডাক্টরকে মারধর করার অভিযোগ উঠল। গুরুতর জখম কনডাক্টর অভিজিৎ বর্মনকে জলপাইগুড়ির সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। এনবিএসটিসির জলপাইগুড়ি ডিপো সূত্রে খবর, এ বিষয়ে জলপাইগুড়ি কোতয়ালি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

জলপাইগুড়ি ডিপোর তরফে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার প্রথম ঘটনাটি ঘটে এক ছাত্রের সঙ্গে বাস ভাড়া সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কনডাক্টরের সঙ্গে বচসার জেরে। অভিযোগ, মালবাজার-জলপাইগুড়ি গামী একটি বাসে এক ছাত্র ময়নাগুড়ি থেকে উঠেছিল। সে পাহাড়পুরে যাচ্ছিল। বাসের কনডাক্টর ২১ টাকা ভাড়া চাইলে ছাত্রটি ১০ টাকা দিতে চায়। কিন্তু সরকারি ভাড়া ২১ টাকা বলা হলে ওই ছাত্রটি বচসা শুরু করে দেয়। এরপর পাহাড়পুরে বাস থামলে কনডাক্টরকে বাস থেকে নামিয়ে মারধর করে ওই ছাত্র।

এদিন সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ অপর ঘটনাটি ঘটে পাহাড়পুর পেট্রোল পাম্প এলাকায়। জানা গিয়েছে, মালদা-কোচবিহার গামী একটি সরকারি বাস পাহাড়পুর পেট্রোল পাম্প এলাকায় জাতীয় সড়কের পাশে যাত্রী নামাচ্ছিল। সেই সময় এক ট্রাকের খালাসি মদ্যপ অবস্থায় বাসটিতে ভাঙচুর চালায়। এদিন রাতে দুটি ঘটনায় কোতয়ালি থানায় অভিযোগ জানান জলপাইগুড়ি ডিপোর দুই কর্মী। ট্রাকের খালাসিকে আটক করা হয়েছে। ঘটনা দুটি খতিয়ে দেখছে কোতয়ালি থানার পুলিশ।