বলিউড ড্রাগস মামলায় কারা, এনসিবি বসের সফর ঘিরে জল্পনা

375

নিউজ ডেস্ক: পুজোর মরশুমে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো অর্থাৎ এনসিবির তীব্র রোষ নামতে চলেছে বলিউডের ওপর। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার ডিজি রাকেশ আস্থানার সম্প্রতি মুম্বই সফরের পরে জল্পনা এখন তুঙ্গে। পরবর্তী দু’সপ্তাহে বলিউডের কয়েকজন সেলিব্রিটিকে মাদকচক্রে জড়িত থাকার অভিযোগে এনসিবি-র জেরা এমনকি, গ্রেপ্তারির মুখে পড়তে হতে পারে বলেও গুঞ্জন চলছে।

সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ডিজি’র পাশাপাশি অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে এনসিবি প্রধানের পদে রয়েছেন আইপিএস অফিসার রাকেশ আস্থানা। অন্যদিকে, সুত্রের খবর, রাকেশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের ঘনিষ্ঠ। আর সম্প্রতি তাঁর মুম্বই সফর নিয়ে কোনও সংস্থার তরফেই প্রকাশ্যে কিছু বলা হয়নি। এনসিবি-র একটি সূত্র জানাচ্ছে, শুক্রবার মুম্বই থেকে দিল্লিতে ফিরেছেন তিনি। এরপরেই নতুন করে আলোচনার কেন্দ্রে এসেছে বলিউডের মাদক মামলা।

- Advertisement -

প্রায় এক মাস পুলিশ ও বিচারবিভাগীয় হেপাজতে থাকার পরে রিয়া জামিনে মুক্তি পেলেও তাঁর ভাই শৌভিক এখনও জেলে। বলিউডের মাদকচক্রে জড়িত থাকার অভিযোগ এ পর্যন্ত এনসিবি প্রায় ২০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। দীপিকা ছাড়াও জেরা করা হয়েছে অভিনেত্রী সারা আলি খান, শ্রদ্ধা কপূর, রকুলপ্রীত সিংহ, ফ্যাশন ডিজাইনার সিমোনে খামবাট্টা এবং সুশান্তে প্রাক্তন ম্যানেজার শ্রুতি মোদিকে।

এনসিবি-র দাবি, এই হাই প্রোফাইল মাদক মামলায় কেরলের কাসরগড়ের একটি মডিউলেরও সন্ধান মিলেছে। পুরো তদন্তপর্বে রাকেশ আস্থানা নিজে দেশের বিভিন্ন জায়গায় গিয়েছেন। এনসিবি জানিয়েছে, বলিউডে হেরোইন এবং অ্যাম্ফিটামিন পৌঁছয় পাকিস্তান-আফগানিস্তান কিংবা মোজাম্বিক-মলদ্বীপ-শ্রীলঙ্কা পথে। কোকেনের ‘উৎস’ দক্ষিণ আমেরিকা এবং আফ্রিকা।