সঠিক রিপোর্ট না মেলায় রায়গঞ্জ বিএড কলেজে ভরতি বাতিলের নির্দেশিকা  এনসিটিইর

692

রায়গঞ্জ ২ ফেব্রুয়ারিঃ ২০২০-২১ শিক্ষা বর্ষের ছাত্র-ছাত্রীর ভরতি বাতিল হল রায়গঞ্জ বিএড কলেজে। বিল্ডিং নির্মাণে সঠিক পদ্ধতি মেনে রিপোর্ট না পাঠানোয় ও জমি সংক্রান্ত নথিপত্র না পাঠানোয় এনসিটিই থেকে এমনই নির্দেশিকা এসেছে বলে কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে। এই নিয়ে ইতিমধ্যেই কলেজের শিক্ষক মহল থেকে শুরু করে অন্যান্য কর্মী এবং ছাত্র-ছাত্রীদের ব্যাপক ক্ষোভ এবং উদ্বেগের সৃষ্টি হয়েছে। যদিও কলেজের অধ্যক্ষ চৈতন্য মণ্ডল বলেন, ‘শিক্ষা বর্ষের ছাত্র ভর্তির কোন নির্দেশিকা এখনো হাতে পায়নি। আমরা এনসিটিই অর্থাৎ (ন্যাশনাল কাউন্সিল ফর টিচার এডুকেশনে) যে নথিপত্র পাঠাতে হয় আমরা সেটা পাঠিয়েছি। চিঠি হাতে পেলে নিশ্চয়ই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব’।
বিএড কলেজের কেন্দ্রীয় নিয়ামক সংস্থা অর্থাৎ এনসিটিই নির্দেশ মেনে বিভিন্ন তথ্য পাঠানোর নিয়ম কলেজ কর্তৃপক্ষের। কিন্তু জানা গিয়েছে, বিল্ডিং নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ট সংস্থার আধিকারিককের সই সহ যে নথিপত্র পাঠানোর কথা কলেজ কর্তৃপক্ষ তা পাঠাইনি। এছাড়াও কলেজের মোট কত জমি রয়েছে এবং কতটুকু জমিতে বিল্ডিং নির্মাণ হয়েছে সেই সংক্রান্ত তথ্য বার বার চেয়েও পাইনি এনসিটিই কর্তৃপক্ষ। এই অসঙ্গতির জন্যই আগামী শিক্ষাবর্ষে ছাত্র ভর্তি বাতিল হতে চলেছে। উত্তর এবং দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় রায়গঞ্জ থানার কর্ণজোড়া ফাঁড়ির জেলা শিক্ষা দপ্তর সংলগ্ন এলাকায় একমাত্র সরকারি বিএড কলেজটি অবস্থিত। এই বিএড কলেজ বন্ধ হয়ে গেলে চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়তে হবে ছাত্র-ছাত্রীরা। বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিএড কলেজের শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীদের একাংশ।