পশ্চিম বর্ধমান জেলায় বাইক মিছিল নিষিদ্ধ করল নির্বাচন কমিশন

50
প্রতীকী

আসানসোল, ২৩ মার্চঃ আগামী ২৬ এপ্রিল পশ্চিম বর্ধমান জেলার ৯টি বিধানসভা কেন্দ্রে ভোট হবে। ইতিমধ্যেই জেলাজুড়ে জোরদার প্রস্তুতি চলছে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ মতো, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সুষ্ঠ ও অবাধ নির্বাচন করতে সব রকমের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এদিকে, নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে নির্দেশিকা জারি করে বলা হয়েছে, আগামী ২৩ থেকে ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত পশ্চিম বর্ধমান জেলায় কোথাও কোনও রকম বাইক মিছিল করা যাবে না।

নির্বাচন কমিশনের তরফে আরও বলা হয়েছে, এই নির্দেশ সমস্ত রাজনৈতিক দল, জেলা প্রশাসন, আসানসোল দূর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের অধীনে থাকা জেলার সবকটি থানা ও পুলিশ আধিকারিকদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। যদি ভোটের প্রচারে বা অন্য কোনও ব্যাপারে উল্লেখ করা দিনগুলিতে ৫টি বা তার থেকে বেশি সংখ্যায় মোটরবাইক কোথাও দেখা যায়, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নির্বাচন বিধি ভঙ্গের আইন অনুযায়ী সেক্ষেত্রে ওই বাইক চালকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে বলে নির্বাচন কমিশন পরিষ্কার করে জানিয়ে দিয়েছে।

- Advertisement -

নির্বাচন কমিশনের কাছে ইতিমধ্যেই ভোটের সময় বাইক মিছিল করে বিভিন্ন এলাকায় ভোটারদের ভয় দেখানো হয় বলে একাধিক অভিযোগ জমা পড়েছে। সেইসব অভিযোগে বলা হয়েছে, ভোট শুরু হওয়ার ৪৮ ঘণ্টা আগে নির্বাচনের প্রচার শেষ হয়ে গেলেও, বেশ কিছু জায়গায় বাইকে করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কর্মী ও সমর্থকের ঘুরে বেড়ান। তাতে ওই সব এলাকার ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়। গত কয়েকটি নির্বাচনে এই ধরনের ঘটনা যে ঘটেছিল বলে নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ এসেছে। অবিলম্বে, এই বাইক নিয়ে টহলদারি বন্ধ করার আর্জি নির্বাচন কমিশনের কাছে জানানো হয়েছে। তাই নির্বাচন কমিশন এই নির্দেশিকা জারি করেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, এবারের বিধানসভা নির্বাচনে গাড়ি ব্যবহার নিয়ে প্রথম থেকেই কড়া মনোভাব নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। বিভিন্ন দলের ভোট প্রচারের ক্ষেত্রে ৫টির বেশি বাইক বা অন্য গাড়ি ব্যবহার করা যাবে না বলে ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে কমিশন। সেই নির্দেশ অমান্য করায় বারাবনি ও আসানসোল দক্ষিণ বিধান সভাকেন্দ্রে এরমধ্যেই একাধিক দলের বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করার খবর পাওয়া গিয়েছে। তবে, কমিশনের এই নির্দেশিকা ভোটের দিনগুলিতে রাজনৈতিক দলগুলি কতটা মান্যতা দেয়, সেদিকেই তাঁকিয়ে সমাজের বিশিষ্ট মহল।