নতুন ধরণের মাস্ক তৈরি করল খুদে বিজ্ঞানী, সাড়া পড়ল শহরজুড়ে

243

বর্ধমান: কোভিড আক্রান্তদের প্রাণে বাঁচানোর জন্যে  জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিন রাত এক করে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন চিকিৎসক ও নার্সরা। কোভিড যুদ্ধে নিজে সামিল হতে না পারলেও প্রথম সারির  সেইসব কোভিড যোদ্ধাদের জন্য বিশেষ কিছু একটা করার ব্যাপারে  মনস্থির করে বসে  দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্র দেবর্ষি দে। সেই অনুযায়ী  নিজের বিজ্ঞান ভাবনা ও উদ্ভাবনী শক্তিকে কাজে লাগিয়ে দেবর্ষি  তৈরি করে ফেলেছে ‘ইউনিভারসাল মাস্ক এয়ার সাপ্লায়ার’। পিপিই কিট পরিহিত প্রথম সারির করোনা যোদ্ধাদের মুখে থাকা তাঁর তৈরি মাস্ক ফ্রেশ অক্সিজেন সরবরাহ করবে।

পাশাপাশি শ্বাস কষ্টের রোগীরা ’নেবুলাইজেশনের’ সহায়তাও তাঁর আবিস্কৃত মাস্কের মাধ্যমে পাবেন বলে  ছাত্র দেবর্ষি দাবি করেছে। নিজের তৈরি করা ডিভাইসের ব্যখ্যা দিতে গিয়ে দেবর্ষি জানিয়েছে ,সাধারণ মানুষের জন্য তৈরি করা তাঁর ’মাস্ক এয়ার সাপ্লায়ার ডিভাইসটিতে ২ টি এয়ার  সাকার রয়েছে । আর ডাক্তার ও নার্সদের ব্যবহারের জন্যে তৈরি করা ডিভাইসটিতে রয়েছে ৫ টি এয়ার সাকার রয়েছে। প্রতিটি এয়ার সাকারের মধ্যে রয়েছে ৬ টি ০.১-০.৩ মাইক্রোনের ফিল্টার।

- Advertisement -

বিডিও শুভঙ্কর মজুমদার জানিয়েছেন, দেবর্ষির আবিস্কৃত মাস্কটি অভূতপূর্ব লাগায় তিনি বিষয়টি সন্মন্ধে বিএমওএইচ কে জানান । এমন মাস্ক প্রথম সারির কোভিড যোদ্ধারের কাজের ক্ষেত্রে বিশেষ সহায়ক ভূমিকা নেবে বলেই তাঁর মনে হয়েছে।  সার্টিফিকেশনের জন্যে বিএমওএইচ মাস্কের বিষয়টি নিয়ে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। সার্টিফিকেশন পাওয়া গেলে সরকারী ভাবে দেবর্ষির আবিস্কৃত মাস্ক ব্যবহার করা যাবে বলে বিডিও জানিয়েছেন ।