করিমগঞ্জ, ২৩ এপ্রিলঃ বিয়েতে পর্যান্ত পণ পায়নি। তাই বিয়ের পর দুই বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে নিজের স্ত্রীকে ধর্ষণ করল স্বামী। অসমের করিমগঞ্জের ঘটনা। নির্যাতিতার অভিযোগের ভিত্তিতে ধর্ষক স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত বাকি দু’জনের খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি করিমগঞ্জ জেলার ওই মেয়েটির সঙ্গে স্থানীয় এক যুবকের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় ওই যুবক পণ বাবদ প্রচুর সোনার গয়না চেয়েছিল। কিন্তু তার চাহিদা মেটাতে পারেনি ওই মেয়েটির পরিবার। সেজন্য বিয়ের কয়েকদিন পর, গত ১৭ এপ্রিল ওই যুবক দুই বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে তার স্ত্রীকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ।

প্রথমে অবশ্য ঘটনাটি কেউ জানত না। ধর্ষণের জেরে ওই নববধূ অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাঁকে গত ২০ এপ্রিল স্থানীয় সরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয়। তখনই তাঁকে ধর্ষণ করার ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসে। পুলিশকে গোটা ঘটনাটি জানিয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই নববধূ।