রেফারিকে গুঁতো দিয়ে বিতর্কে নেইমার

সাও পাওলো : লাতিন আমেরিকার প্রথম দেশ হিসেবে কাতার বিশ্বকাপের যোগ্যতাঅর্জন করল ব্রাজিল।

বৃহস্পতিবার বিশ্বকাপ কোয়ালিফায়ারে কলম্বিয়াকে ১-০ গোলে হারাল সেলেকাওরা। ম্যাচের ৭২ মিনিটে নেইমারের থ্রু পাস ধরে দলের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন লুকাস প্যাকুয়েতা। তবে ব্রাজিলের জয়ের বদলে চর্চার কেন্দ্রে নেইমার আর তাঁকে ঘিরে তৈরি হওয়া বিতর্ক।

- Advertisement -

কলম্বিয়া ম্যাচের আগের দিন থেকে টানা বৃষ্টির কারণে সাও পাওলোর মাঠের অবস্থা ছিল করুণ। তবে স্যাঁতস্যাতে পরিবেশ অগ্নিগর্ভ হল দুদলের মারকুটে ফুটবলের সৌজন্যে। মোট ৪৪টি ফাউল সঙ্গে ৭টি হলুদ কার্ড। বারবার রেফারির হস্তক্ষেপে তাল কাটল লাতিন আমেরিকান ফুটবলের চেনা ছন্দে। দ্বিতীয়ার্ধে বির্তক আরও বাড়ালেন নেইমার।

একটি ফাউল ঘিরে অসন্তোষ প্রকাশ করতে গিয়ে ব্রাজিলিয়ান মহাতারকা চড়াও হলেন রেফারির ওপর। সরাসরি হেডবাট করে রেফারিকে আঘাত করেন নেইমার। ভাগ্য ভালো, লালের বদলে শুধু হলুদ কার্ড দেখিয়ে ব্রাজিলিয়ান তারকাকে সে যাত্রায় রেহাই দেন রেফারি। নয়তো পরের ম্যাচে বন্ধু লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনার বিরুদ্ধে গ্যালারিতে বসতে হত নেইমারকে।

প্রথমার্ধে ব্রাজিল রক্ষণে চাপ তৈরি করেছিলেন হুয়ান কুয়াদ্রাদোরা। কোণঠাসা পরিস্থিতি থেকে রেহাই পেতে দ্বিতীয়ার্ধে মাস্টারস্ট্রোক দেন ব্রাজিল কোচ টিটে। নামান ভিনিসিয়াস জুনিয়ারকে। রাফিনহার পরিবর্তে ভিনি নামতে ছন্দ খুঁজে পেতে সমস্যা হয়নি নেইমারের।

ম্যাচের পর ব্রাজিলের ডিফেন্ডার মার্কুইনোসের কথায়, কলম্বিয়া কিছুসময়ে জন্য মারাত্মক চাপ তৈরি করেছিল। সেইসময় মাথা ঠান্ডা রাখা খুব জরুরি ছিল। আমরা জানতাম, পরের ৪৫ মিনিটে অনেক সুযোগ তৈরি হবে। তাই হয়েছে।

কলম্বিয়া-জয়ের সঙ্গে জোড়া রেকর্ড প্রাপ্তি জোগো বোনিতোর দেশের। বিশ্বকাপ কোয়ালিফায়ারে ঘরের মাঠে টানা ১১ ম্যাচে জিতল ব্রাজিল। সঙ্গে একই প্রতিযোগিতায় ঘরের মাঠে টানা ১০ ম্যাচ কোনও গোলহজম না করার নজিরও গড়ল সেলেকাওরা।