ক্যানসারের চিকিৎসায় অপারগ নিমাই, দ্রুত স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের আশ্বাস মহকুমা শাসকের

116

মেখলিগঞ্জ: অর্থের অভাবে ভালোভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেন না মেখলিগঞ্জ পুরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা নিমাই মণ্ডল। নিমাইবাবু ভিন রাজ্যে কাঠ মিস্ত্রীর কাজ করতেন। খাদ্য নালী তে টিউমার ধরা পড়ে তাঁর। তারপর সেই টিউমার থেকেই ক্যানসার ধরা পড়ে। নিমাইবাবুর বাড়িতে স্ত্রী ও চার বছরের ছেলে রয়েছে। বর্তমানে মেখলিগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলেছে। রবিবার নিমাই মন্ডল বলেন, ‘শরীরে রক্ত নেই তাই রক্ত নিতে হয়। বিগত চার মাস ধরে ভুগছি। কাজ করতে পারি না। দাদারা সাহায্য করে কোনও রকমে সংসার চালাচ্ছে। স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নেই‌। ভিন রাজ্যে কাজের সূত্রে থাকার কারণে স্বাস্থ্য সাথী কার্ডের জন্য আবেদনও করতে পারিনি। স্বাস্থ্য সাথী কার্ড হলে চিকিৎসা করতে পারবো।‘

 নিমাই বাবুর পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, নর্থ বেঙ্গল মেডিকেল কলেজে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সেখান থেকে বাইরে নিয়ে যেতে বলা হয় উন্নত চিকিৎসার জন্য। কিন্তু আর্থিক অবস্থা খারাপ থাকার কারণে বাইরে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করানো সম্ভব না। স্বাস্থ্যসাথী কার্ড থাকলে ওনার চিকিৎসা ভালো ভাবে করানো যেতো বলেই মনে করছে পরিবার। মেখলিগঞ্জ পুরসভার পুর আধিকারিক সিদ্ধার্থ রায় চৌধুরী বলেন, ‘কি ভাবে নিমাই মন্ডল কে আমরা সহযোগিতা করতে পারি সেই বিষয়ে আলোচনা করবো।‘  মেখলিগঞ্জের মহকুমা শাসক রাম কুমার তামাং বলেন, ‘যত দ্রুত সম্ভব নিমাই বাবুর স্বাস্থ্যসাথী কার্ড করিয়ে দেবার চেষ্টা করবো। ‘

- Advertisement -