জল্পনায় সিলমোহর, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হচ্ছেন নিশীথ-শান্তনু

238

শিলিগুড়ি: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মন্ত্রীসভায় এবার স্থান পেতে চলেছেন কোচবিহারের বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামাণিক। এই জল্পনায় কার্যত সিলমোহর পড়ে গিয়েছে। বাংলা থেকে আপাতত দু-জনকে মন্ত্রী সভায় ঠাঁই দেওয়া হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। এর মধ্যে নিশীথ প্রামাণিক ছাড়াও রয়েছেন বনগাঁর বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর। তবে রায়গঞ্জের সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরীকে মন্ত্রীসভা থেকে পদত্যাগ করতে বলা হয়েছে। ফলে উত্তরবঙ্গ থেকে একজনই মন্ত্রীসভায় রয়ে গেলেন।

রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে ধাক্কা খাওয়ার পর ঘুরে দাঁড়াতে চাইছে বিজেপি। ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গে বিজেপি ভালো ফল করেছিল। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়ে সেবছর কোচবিহার থেকে বিজেপির টিকিটে জয় পেয়েছিলেন নিশীথ। এবছর রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনেও দল তাঁকে দিনহাটা থেকে প্রার্থী করে। সেখানেও তিনি জয় পান। যদিও নিশীথ পরে বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেন। উত্তরবঙ্গে বিজেপির অন্যতম মুখ হয়ে উঠেছেন তিনি। বিধানসভা ভোটের পরপরই তাঁকে দিল্লিতে ডেকে পাঠিয়েছিলেন দলের শীর্ষ নেতৃত্ব।

- Advertisement -

এদিকে, দু’সপ্তাহ ধরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভায় রদবদলের জল্পনা চলছে। বিজেপি সূত্রের খবর, প্রায় ২০ জন নতুন মন্ত্রী শপথ নিতে পারেন। বুধ অথবা বৃহস্পতিবার শপথগ্রহণ হতে পারে। শান্তনু ঠাকুরও মন্ত্রীসভায় স্থান পেতে পারেন বলে জল্পনা ছড়িয়েছে। মতুয়া ভোটের কথা মাথায় রেখেই শান্তনু ঠাকুরকে মন্ত্রী করা হচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে। এতদিন বাংলা থেকে দুজন মন্ত্রী ছিলেন। তাঁদের একজন আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়, আর অপরজন রায়গঞ্জের সাংসদ দেবশ্রী রায়চৌধুরী। তবে তাঁরা কেউই পূর্ণ মন্ত্রী ছিলেন না। দেবশ্রী ও বাবুল দুজনই এদিন পদত্যাগ করেছেন।