পিকে-র বাড়ি ভাঙল নীতীশের প্রশাসন

152

বক্সার: তাঁর প্রচারকৌশলের ওপর ভিত্তি করে একদা বিহারের কুর্সি জিতেছিলেন নীতীশ কুমার। সেজন্য তাঁকে নিজের দলের সহসভাপতির পদেও বসিয়েছিলেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী। অথচ জাতীয় সড়ক তৈরির জন্য সেই প্রশান্ত কিশোর (পিকে)-এর পৈতৃক ভিটের একাংশ বুলডোজার দিয়ে ভেঙে গুঁড়িয়ে দিল নীতীশ কুমারের প্রশাসন। গোটা ঘটনায় উন্নয়নের কর্মকাণ্ড ছাপিয়ে ফুলেফেঁপে উঠেছে রাজনীতির ঠান্ডাযুদ্ধ। পিকের বাবা প্রয়াত শ্রীকান্ত পান্ডে ওই বাড়িটি তৈরি করেছিলেন। ৮৪ নম্বর জাতীয় সড়ক চওড়ার জন্য ওই বাড়ির একাংশ ভেঙে ফেলা হয়। ভাঙনকার‌্য তদারকির জন্য ঘটনাস্থলে হাজির ছিলেন এলাকার মহকুমা শাসক কেকে উপাধ্যায়।

তিনি জানান, জাতীয় সড়ক চওড়ার জন্য যে জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে সেখানেই রয়েছে পিকের পৈতৃক বাড়ির পাঁচিল। অধিকৃত জমিতে যাঁদের সম্পত্তি রয়েছে তাঁরা নিজে থেকেই সেসব সরানোর ব্যবস্থা করেছেন। কিন্তু পিকের বাড়িটি ফাঁকা অবস্থায় পড়ে থাকায় বুলডোজার আনা ছাড়া উপায় ছিল না। যাঁদের বাড়ি ভাঙা হচ্ছে তাঁদের ক্ষতিপূরণও দেওয়া হচ্ছে। এসডিএম জানিয়েছেন, রাস্তার কাজের জন্য একটি মন্দিরকেও সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশ অভিযোগ তুলেছিলেন, এলাকায় যাঁরা প্রভাবশালী বলে পরিচিত, তাঁদের বাড়ি অধিকৃত জমিতে থাকা সত্ত্বেও সেসব বাড়ি ভাঙা হয়নি। যদিও মহকুমা শাসক এই অভিযোগ মানতে চাননি।

- Advertisement -