বাড়ি ভাড়ার তথ্য নেই, অপরাধীদের সফট টার্গেট শিলিগুড়ি

234

রাহুল মজুমদার, শিলিগুড়ি : শিলিগুড়িতে কত বহিরাগত রয়েছে? কত মানুষ বাড়ি ভাড়া করে রয়েছে? কোন আবাসনে বাইরের লোক রয়েছে? এইসব কোনও তথ্যই নেই শিলিগুড়ি পুলিশের কাছে। ফলে শহরে কে আসছে কে যাচ্ছে তার কোনও হদিস নেই শিলিগুড়ি পুলিশের কাছে। এর ফলে যে কোনও সময় বড় ধরনের বিপদ ঘটতে পারে। কলকাতার নিউটাউনে বুধবার যে ঘটনা ঘটেছে যে কোনও সময় শিলিগুড়িতেও সেই ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে। তাই অবিলম্বে শহরজুড়ে বাড়ি ভাড়ার তথ্য সংগ্রহের ওপর জোর দেওয়ার দাবি উঠেছে। প্রয়োজনে পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে পুরনিগম এই কাজ করুক, চাইছেন শহরবাসী। শিলিগুড়ির পুলিশ কমিশনার গৌরব শর্মা বলেন,বাড়ি ভাড়া সংক্রান্ত বিষয়ে শুক্রবার পুলিশের তরফে কিছু বিষয় ঘোষণা করা হবে। শিলিগুড়ি পুরনিগমের প্রশাসনিক বোর্ডের সদস্য রঞ্জন সরকার বলেন, আমরা খুব শীঘ্রই বাড়ি ভাড়ার তথ্য সংগ্রহের কাজ শুরু করব। পুরনিগম থেকে বিনামূল্যে ফর্ম দেওয়া হবে। সেই ফর্ম পূরণ করে পুলিশের কাছে জমা করতে হবে।

চারিদিকে আন্তর্জাতিক সীমান্তে ঘেরা শিলিগুড়িতে প্রায় প্রতিদিনই বহিরাগতরা এসে আস্তানা করে। এই মুহূর্তে শহরে শতাধিক আবাসন রয়েছে। শহরের বিভিন্ন বার, হোটেলে চলে মদ্যপান, হইহুল্লোড়। এর পাশাপাশি বহিরাগত প্রচুর মানুষ শহরের বিভিন্ন এলাকায় বাড়ি এবং আবাসনে ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে থাকে। কিন্তু এরা কারা? কোথা থেকে আসছে? কী উদ্দেশ্যে? কেউই জানেন না। এরকম বাড়ি ভাড়া নিয়ে চলছে বিভিন্ন ধরনের অপরাধ। শিলিগুড়িতে বিগত কয়েক বছরের তথ্য ঘাঁটলে অন্তত এমনটাই সামনে আসছে। শিলিগুড়ির বর্ধমান রোডে স্বর্ণ ঋণ প্রদানকারী সংস্থায় জড়িতরা বাগডোগরায় বাড়ি ভাড়া নিয়ে সাতদিন থেকে এলাকার রেইকি করে লুঠ করেছিল।

- Advertisement -

বছরখানেক আগে শিলিগুড়িতে এসটিএফের অভিযানে ভক্তিনগর থানা এলাকায় একটি ভাড়াবাড়ি থেকে মালদার এক মাদক ব্যবসাযী গ্রেপ্তার হয়। ওই বাড়ি থেকে মাদক, প্যাকিংয়ের যন্ত্র, টাকা পাওয়া যায়। তার আগে শিলিগুড়িতে পেট্রোল পাম্পের ডাকাতির ঘটনায় তদন্তে নেমে কুমোরটুলির একটি বাড়ি থেকে বহিরাগত এক ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছিল শিলিগুড়ি পুলিশের বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট)। তার আগে শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতাল থেকে বাচ্চা চুরি করে পালানোর ঘটনায় যারা ধরা পড়েছিল তাদের মধ্যেও একজন বহিরাগত ছিল। বছর চারেক আগে ভক্তিনগর থানা এলাকার একটি বাড়ি থেকেই রাতে পুলিশের বিশেষ অভিযানে জঙ্গি সন্দেহে একজন গ্রেপ্তার হয়। সিবিআই আধিকারিক সেজে তোলাবাজি করার অপরাধে গত মাসেই শিলিগুড়ি সংলগ্ন এলাকার একটি হোটেল থেকে দুজনকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে গিয়েছে সিআইডি। এইসব তথ্য থেকে স্পষ্ট যে, অপরাধ সংগঠিত করার জন্য শিলিগুড়িকেই সফট টার্গেট করা হয়।