বেতন নেই চিকিৎসকদের, উদাসিন পুরসভা

293

নয়াদিল্লি: ডাক্তাররা নাকি করোনাযোদ্ধা! ফ্রন্ট লাইন ওয়ারিওর! আরও কতই না ‘তকমা’ পেয়ে দিয়ে বিস্তর ঢাক পেটাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু খাস দিল্লিতেই বিজেপি পরিচালিত উত্তর দিল্লি পুরসভার অধীনে থাকা তিনটি হাসপাতালের ডাক্তাররা জুলাই থেকে বেতনহীন অবস্থায় রয়েছেন। গত ২০ দিন ধর্মঘটে বসেও লাভ হয়নি। এরপরই অনশন ধর্মঘটে বসলেন দিল্লির পাঁচ জন চিকিৎসক।

জানা গিয়েছে, তিন দিন আগে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখে ডাক্তাররা বেতনের সমস্যা সমাধানের অনুরোধ জানিয়েছিলেন। কিন্তু তাতেও কোনও লাভ হয়নি। এই অবস্থায় আর কোনও পথ না পেয়ে সপ্তমীর সন্ধ্যা থেকে অনশন ধর্মঘটে বসলেন দিল্লির পাঁচ জন চিকিৎসক। হিন্দু রাও হাসপাতাল, রাজন বাবু টিবি হাসপাতাল, কস্তুরবা গাঁধী মহিলা হাসপাতাল মিলিয়ে প্রায় ২ হাজার ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মী গত সপ্তাহ থেকেই ধর্মঘট করছেন। তিনটি হাসপাতালই বিজেপি পরিচালিত উত্তর দিল্লি পুরসভার অধীনে।

- Advertisement -

এঁদের মধ্যে হিন্দু রাও হাসপাতালের ডাক্তাররা মাসের গোড়া থেকেই ধর্মঘট শুরু করেছিলেন। বাকিরা গত সপ্তাহ থেকে তাঁদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। কিন্তু তার পরেও প্রশাসনের টনক না নড়ায় শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে সিদ্ধার্থ তারা, মনীশ চৌধরি, তেজস চৌধরি, ময়ূর এবং নীলচক্র সাহুর মতো চিকিৎসকেরা অনশন শুরু করেন।

হাসপাতালের সামনেই ফুটপাথে অনশন করছেন তাঁরা। হিন্দু রাও হাসপাতালের আবাসিক ডাক্তারদের সংগঠনের সভাপতি বলেন, ‘আমি গত কাল সারারাত ওখানে ছিলাম। অনশনকারীদের মনের জোর ও সংকল্পকে স্যালুট জানাচ্ছি। উত্তর দিল্লি পুরসভার জন্যই পরিস্থিতি এমন লজ্জাজনক হয়ে উঠেছে।’

শনিবার অভিযোগ উঠেছে, বেতনের সমস্যার সমাধানের বদলে ডাক্তারদের উপরে চাপ তৈরি করতে বদলি করা হচ্ছে। ওইদিন হিন্দু রাওয়ের ডাক্তাররা আবাসিক ডাক্তারদের সঙ্গে ধর্মঘটে যাওয়ায় চার জন প্রবীণ চিকিৎসককে বদলি করা হয়। ডাক্তারদের অভিযোগ, এমস-সহ অন্যান্য হাসপাতালের ডাক্তাররাও তাঁদের প্রতিবাদকে সমর্থন জানিয়েছেন।

তবে তিনটি হাসপাতালের মধ্যে ৯০০ শয্যার হিন্দু রাও হাসপাতাল কোভিড রোগীদের জন্য নির্দিষ্ট ছিল। ডাক্তারদের যুক্তি, রাজঘাট থেকে যন্তর মন্তরে প্রতিবাদ, কালো ব্যাজ পরে স্লোগান, প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি, সবই হয়ে গিয়েছে। ধর্মঘট ছাড়া তাঁদের কোনও উপায় ছিল না। তারপরেও লাভ হচ্ছে না দেখে ‘বিনা বেতনের করোনা-যোদ্ধা’-দের অনশনে বসতে হয়েছে। পুরসভা অবশ্য একে রুটিন বদলি বলে দাবি করেছে।