ফাইনালে হারা নেইমারকে মেসির সান্ত্বনা

রিও : বার্সেলোনায় টানা চারটে বছর একসঙ্গে কাটিয়েছেন। তখন থেকেই একে অপরের অভিন্ন হৃদয় বন্ধু। ক্লাব বদল আর দেশের জার্সিতে রেষারেষি- কোনও কিছুই লিওনেল মেসি ও নেইমারের সুসম্পর্কে প্রভাব ফেলতে পারেনি।

রবিবার ভারতীয় সময় ভোরে অবশ্য ঘণ্টা দুয়েকের জন্য বন্ধুত্ব ভুলে যাওয়ার বার্তা দিয়েছিলেন নেইমার। বাস্তবেও তাই হল। ম্যাচে একে অপরকে আটকাতে মরিয়া চেষ্টা করলেন দুজনে। এমনকি মেসির ট্যাকেলে মাঠে পড়ে গেলেন নেইমার- এই দৃশ্যও নজরে এসেছে। কিন্তু ম্যাচ শেষ হতেই বন্ধুত্বের পুরোনো ছবি। দলের সঙ্গে উদ্যাপন বাদ দিয়ে নেইমারকে সান্ত্বনা দিতে দেখা গেল মেসিকে। চোখে জল নিয়ে দীর্ঘক্ষণ তাঁকে জড়িয়ে ধরে ছিলেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টারও। শুনলেন মেসির কথা। পরবর্তীতে মেসি-নেইমারকে পাশাপাশি হাসিমুখেও দেখা গিয়েছে।

- Advertisement -

FC Barcelona on Twitter: “This is why we love this game. https://t.co/4fXsztqQ8R” / Twitter

কনমেবলের বিচারে এবারের কোপার সেরা ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছেন মেসি ও নেইমার। এর আগে কখনই কোপায় দুজনকে সেরা হিসেবে বেঁছে নেওয়া হয়নি। কিন্তু এক বিবৃতিতে কনমেবল জানিয়েছে, এবার কোনওভাবেই একজনকে সেরা বলার সুযোগ নেই। দলের সেরা তারকার পাশাপাশি প্রতিপক্ষের প্রতিও শ্রদ্ধা রয়েছে ব্রাজিলের কোচ টিটের কথায়। তিনি বলেন, সব সময় হার মানেই ব্যর্থতা নয়। কিছু প্রতিপক্ষের কাছে হারাটাও সম্মানের। আজ মেসি-নেইমার যে ছবি আমাদের দেখান, খেলার মাধ্যমে আমরা সম্ভবত এই বার্তাই সকলের সামনে তুলে ধরতে চাই।

এদিন হারের পর মাঠ-বিতর্কে নতুন করে হাওয়া দিয়েছেন টিটে। কাসেমিরোদের হেডস্যরের ক্ষোভ, কোপার মাঠের মান নিয়ে আলোচনা হওয়া প্রয়োজন। অনুশীলনে চোট পেয়ে এভার্টন ছিটকে যাওয়ার মুখে ছিল। ঘাসে আটকে গিয়ে ওর আঙুলে চোট লাগে। এত কম সময়ে কোপার মতো প্রতিযোগিতা আয়োজন করা ঠিক নয়। দুই সপ্তাহের নোটিসে ব্রাজিলে কোপা আয়োজন নিয়ে প্রথম থেকে সরব হয়েছে ব্রাজিল। এদিন নাম উল্লেখ করে কনমেবলের সভাপতি আলেজান্দ্রো ডমিঙ্গুজকে এই অব্যবস্থার জন্য দায়ী করেছেন টিটে।