এবার নন্দীগ্রামে সামনা-সামনি দেখা হবে, শুভেন্দুর টুইটে জোর জল্পনা

301

কলকাতা: ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম থেকে ভোটে লড়বেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার নন্দীগ্রামের জনসভা থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে নিজেই এই ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। নাম না করে এদিন তিনি কার্যত শুভেন্দু অধিকারীকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন। এরপর সোমবার রাতে শুভেন্দু অধিকারীর টুইট ঘিরে জল্পনা বাড়ল। রাত ৯.৩০ মিনিট নাগাদ এক টুইটে ‘এবার নন্দীগ্রামে সামনা-সামনি দেখা হবে।’ বলে টুইট করেন। যা ঘিরে শুরু হয়েছে জল্পনা। যদিও এব্যাপারে বিজেপির তরফে কোনও নিশ্চয়তা মেলেনি।

- Advertisement -

টুইটে তিনি লেখেন, ‘স্বাগতম দিদি। ২১ বছর সঙ্গে ছিলাম। এবার‌ নন্দীগ্রামে সামনা-সামনি দেখা হবে।’ আর তার এই টুইট ঘিরে রাজ্য রাজনীতি এখন বেশ গরমাগরম।

সোমবার নন্দীগ্রামের সভা থেকে মমতা ঘোষণা করেন ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম থেকেই প্রার্থী হবেন তিনি। এই কেন্দ্রে তৃণমূলের বিধায়ক ছিলেন দলত্যাগী নেতা শুভেন্দু অধিকারী। বিজেপিতে যোগদানের আগে বিধায়ক পদে ইস্তফা দেন তিনি। মমতার ঘোষণার পালটা সোমবার সন্ধ্যাতেই দক্ষিণ কলকাতার এক সভা থেকে শুভেন্দু চ্যালেঞ্জ ছোড়েন ‘হাফ লাখ ভোটে যদি হারাতে না পারি রাজনীতি ছেড়ে দেব।’ যদিও তিনি সরাসরি প্রার্থী হবেন কি না তা জানাননি।

শুভেন্দু বলেন, ‘আমি একটা শৃঙ্খলাবদ্ধ পার্টির সদস্যপদ গ্রহণ করেছি। সেখানে নেতৃত্বের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। এটা প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি নয়। দল আমাকে প্রার্থী করুক বা অন্য কাউকে। পদ্ম প্রতীকে মাননীয়াকে হারাবোই হারোবে।’