কোথায় করোনা? স্বাস্থ্যবিধি শিকেয় তুলে শিলিগুড়ি-কোচবিহারের বাজারে উপচে পড়া ভিড়

380
শিলিগুড়ির শেঠ শ্রীলাল মার্কেটে ভিড়।

শিলিগুড়ি ও কোচবিহার: রাজ্যে করোনা সংক্রমণ প্রতিদিনই বাড়ছে। কিন্তু শিলিগুড়ি ও কোচবিহারের বিভিন্ন বাজারে ভিড় দেখে তা বোঝার উপায় নেই। পুজোর কেনাকাটা করতে প্রতিদিনই শিলিগুড়ির হংকং মার্কেট, শেঠ শ্রীলাল মার্কেট, হকার্স কর্ণার, বিধান মার্কেট, কোচবিহারের ভবানীগঞ্জ বাজার, খাগড়াবাড়ি বাজারে মানুষের ভিড় উপচে পড়ছে। অনেকেই বাজারে গিয়ে শারীরিক দূরত্ব মানছেন না। এমনকি অনেকের মুখে মাস্ক পর্যন্ত থাকছে না বলে অভিযোগ। যার ফলে সংক্রমণ আরও বাড়তে পারে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এবছর করোনা আবহে দুর্গাপুজো আয়োজিত হচ্ছে। ইতিমধ্যেই জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা প্রকাশ করে জানিয়েছেন, পুজোর পর রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বাড়তে পারে। এছাড়া কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনও সকলকে সতর্ক করেছেন। তিনি এবছর বাড়িতে বসেই উৎসবের আনন্দ করার পরামর্শ দিয়েছেন।

- Advertisement -

এদিকে, পুজো যত এগিয়ে আসছে রাজ্য সংক্রমণের গতিও তত বাড়ছে। শনিবার রাজ্যে ৩ হাজার ৮৬৫ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। দার্জিলিং জেলায় শনিবার ১২১ জন সংক্রামিতের হদিস মিলেছে। তারমধ্যে শিলিগুড়ি পুরনিগম এলাকার ৪০ জন রয়েছেন। শুক্রবার জেলায় সংক্রামিত হয়েছিলেন ১০৪ জন। অর্থাৎ জেলায় সংক্রামিতের সংখ্যা কিন্তু লাগাতার বেড়েই চলেছে।

অন্যদিকে, কোচবিহার জেলায় শনিবার ৭৬ জনের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। জেলায় বর্তমানে সংক্রামিতের সংখ্যা ৬ হাজার ৮৯১। তার মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৬,২২৭ জন। তথ্য বলছে, শিলিগুড়ি ও কোচবিহারে করোনা সংক্রমণের গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী। কিন্তু মানুষ যেভাবে স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করে পুজোর কেনাকাটা করতে বাজারে ভিড় করছেন তার পরিণতিতে সংক্রমণ আরও বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।