‘দেশের এক নম্বর মিথ্যাবাদী’, বিষ্ণুপুরের সভামঞ্চ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে তোপ মমতার

167

বাঁকুড়া: কাঁথির সভামঞ্চে যখন প্রধানমন্ত্রী ‘দিদি’কে নিশানা করছেন, সেখানে বাঁকুড়া বিষ্ণুপুরের সভামঞ্চ থেকে ‘দেশের এক নম্বর মিথ্যাবাদী’ বলে মোদির উদ্দেশে তোপ দাগলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বললেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারটাকে সম্মান করতাম, এখনও করি। কিন্তু এখন যিনি প্রধানমন্ত্রী, সেই নরেন্দ্র মোদি মিথ্যে ছাড়া আর কিছু বলতেই পারেন না। মোদির মতো এত বড় একটা মিথ্যেবাদী আমি জীবনে দেখিনি।’

এদিনই প্রশ্ন তুলেছেন, ‘এখন ভোট এসছে বলে সপ্তম পে কমিশনের কথা বলে বেড়াচ্ছে বিজেপি নেতারা। এদিকে ত্রিপুরায় প্রভিডেন্ট ফান্ড তুলে দিয়েছে। অসমে এনআরসি-র নামে কী হয়েছে, দেখেছেন তো? মিথ্যেবাদীর দল বিজেপি’। এদিন তিনি বলেন, ‘ওরা কিন্তু ভোটের আগেই টাকা দিতে চাইবে। টাকা দিলে নেবেন কি নেবেন না আপনার ব্যাপার। ওটা আপনার টাকা। তবে টাকা নিলেও ভোট দেবেন না। ওরা কিন্তু আপনাকে বলবে, কোথায় ভোট দিচ্ছিস, দেখতে পাব। এসব কিন্তু পুরো মিথ্যে কথা। কিচ্ছু দেখতে পাবে না। তাই যদি বলে খরচ দিচ্ছি। ওদের খরচ করে দেবেন। কিন্তু ভোটটা দেবেন জোড়া ফুলেই।’

- Advertisement -

মমতার মুখে এদিন ফের উঠে এসেছে নোটবন্দির প্রসঙ্গও। বলেছেন, ‘একটার পর একটা সরকারি সংস্থার বেচে দিচ্ছে। ব্যাংকের বেসরকারিকরণ হচ্ছে। ব্যাংকে টাকা রাখেন তো আপনারা? নোটবন্দির মতো করে এরা ব্যাংক বন্ধ করে দিলে কিন্তু টাকা চলে যাবে আপনার।’ তবে, এবারের ভোটে তিনিই যে একমাত্র তৃণমূলের মুখ, এদিনও তার উল্লেখ করতে ছাড়েননি মমতা। বলেন, ‘বাংলার ২৯১ টা সিটে আমাকেই ভোট দেবেন। তবেই তো আপনাদের বিনামূল্যে চাল দিতে পারব। চাই তো বিনামূল্যে চাল? আমরা বিনামূল্যে চাল দিই, আর বিজেপি ৯০০ টাকার গ্যাস দেয়। আমাকে চাইলে জোড়া ফুলে ভোট দিন। আমিই সব জায়গায় প্রার্থী।’