বিষ খেয়ে আত্মঘাতী নার্সিং ছাত্রী

505

রায়গঞ্জ: বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হল এক নার্সিং ছাত্রী। বুধবার সকালে জমিতে দেওয়া কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে প্রায় দু’ঘণ্টা চিকিৎসার পর মৃত্যু হয় ওই ছাত্রীর। এদিন বিকেলে দেহ ময়নাতদন্তের পর পরিবারের হাতে তুলে দেয় রায়গঞ্জ থানার পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত ছাত্রীর নাম মোসামদ খাতুন(১৯)। বাড়ি দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হরিরামপুর থানার শহিদপুর গ্রামে। ব্যাঙ্গালুরুর একটি নার্সিং কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিল সে।

ওই ছাত্রীর বাবা মোমেনুর ইসলাম বলেন, ‘এদিন সকালে বাড়ি সংলগ্ন এলাকায় সবজির বাগানে সবজি তুলছিলাম আমি ও আমার স্ত্রী। সবজি তুলে বাড়ি ফিরে এসে দেখি আমার মেয়ের মুখ দিয়ে গাজা ফেনা বের হচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে ইটাহার গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে রেফার করে কর্তব্যরত চিকিৎসক। এরপর দুপুর সাড়ে ১২টা নাগাদ আমার মেয়ের মৃত্যু হয়।’ রায়গঞ্জ থানার পুলিশ আধিকারিক বলেন, ‘একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করা হয়েছে। বিষয়টি হরিরামপুর থানায় জানানো হয়েছে।’

- Advertisement -