চিকিৎসার গাফিলতিতে ছাত্র মৃত্যুর অভিযোগে উত্তপ্ত চকচকা, পুলিশ-জনতা খণ্ডযুদ্ধ

364

কোচবিহার, ২০ জানুয়ারিঃ চিকিৎসার গাফিলতিতে ছাত্র মৃত্যুর অভিযোগে নার্সিংহোম ভাঙচুরের অভিযোগ উঠল। সোমবার এই ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে কোচবিহার শহর লাগোয়া চকচকা। ঘটনার জেরে পুলিশ ও জনতা খণ্ডযুদ্ধ বেঁধে যায়। পুলিশের এক আধিকারিককে উত্তেজিত জনতা মারধর করে বলে অভিযোগ। লাঠিচার্জ করে পুলিশ। ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত হন। কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। এখনও এলাকা থমথমে রয়েছে।

চকচকা হাইস্কুলের ছাত্র পার্থ ভৌমিক বেশ কয়েকদিন আগে পথ দুর্ঘটনায় আহত হলে তাকে চকচকা এলাকার একটি নার্সিংহোমে ভরতি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে সেখান থেকে অন্যত্র নিয়ে যেতে চান তার অভিভাবকরা। কিন্তু নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ রোগীকে ছাড়েনি বলে অভিযোগ। এদিন সকালে পার্থ মারা গেলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। নার্সিংহোমে পৌঁছায় পার্থর সহপাঠীরা। ভাঙচুর চালানো হয় নার্সিংহোমে। খবর পেয়ে কোতোয়ালি ও পুণ্ডিবাড়ি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে তাদের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের বচসা বাধে। উত্তেজিত জনতা পুলিশের ওপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ। ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কে দফায় দফায় পথ অবরোধ করা হয়। নার্সিংহোমের তরফে জানানো হয়, প্রথম দিন থেকেই ওই ছাত্রের অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল। রোগীর পরিবারকে প্রথমেই বলা হয়েছিল তাঁরা যদি অন্যত্র তাকে নিয়ে যেতে চান তাহলে নিয়ে যেতে পারেন। যে অভিযোগ এখন করা হচ্ছে তা ঠিক নয়। নার্সিংহোমের সম্পত্তি সহ অন্যান্য রোগীর পরিজনদের যানবাহনও ভাঙচুর করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

- Advertisement -