সরকারি জমি দখল করে নির্মাণ চোপড়ায়

চোপড়া : চোপড়ার বিভিন্ন জায়গায় সরকারি জমি জবরদখল করে একের পর এক অবৈধ নির্মাণ হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠছে। এবার সিডিপিও অফিস চত্বরে সরকারি জমি দখল করে নির্মাণকাজের জন্য খুঁটি পোঁতা হয়েছে। এব্যাপারে চোপড়া থানায় লিখিত অভিযোগও জমা পড়েছে।

দলুয়া ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের পাশেই চোপড়া চাইল্ড ডেভেলপমেন্ট প্রোজেক্ট দপ্তরের অফিস। সিডিপিও অফিস চত্বরের একাংশ জমিতে ঝোপঝাড় সাফাই করে খুঁটি পুঁতে এলাকার একাংশের মদতে নির্মাণকাজ শুরু করার প্রস্তুতির বিষয়টি নজরে পড়তেই এব্যাপারে সিডিপিও দপ্তর থেকে পুলিশকে জানানো হয়। পুলিশ অবশ্য কাজ আটকে দিয়েছে। পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ এলাকায় গিয়ে কাজ আটকে দিয়েছে। এব্যাপারে চোপড়া ব্লকের সিডিপিও হিমাদ্রিশেখর ঘোষের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। তবে অফিস চত্বরে সরকারি জমি দখল আটকাতে গত ১০ সেপ্টেম্বর তিনি থানায় লিখিত অভিযোগ জমা করেছেন বলে জানা গিয়েছে।

- Advertisement -

সম্প্রতি সদর চোপড়া এলাকায় ফরেস্টের রেঞ্জ অফিসের সামনে নতুন করে সরকারি জমি জবরদখল করে নির্মাণকাজ শুরু করার অভিযোগ ঘিরে এলাকায় সাধারণ মানুষের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বাড়তে শুরু করে। বিষয়টি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ হতেই পুলিশ এলাকায় গিয়ে কাজ আটকে দেয়। চোপড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের বিভিন্ন এলাকার কোথাও পূর্ত দপ্তর বা ফরেস্টের জায়গা কিংবা সরকারি জমি দখলের অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে। আর এলাকায় এভাবে জমি দখলের পিছনে শাসকদলের একাংশের মদত রয়েছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। তৃণমূল কংগ্রেসের চোপড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের অঞ্চল সভাপতি তনয় কুণ্ডু বলেন, ফরেস্টের রেঞ্জ অফিসের সামনের জমিতে অবৈধ কাজ পুলিশ বন্ধ করে দিয়েছে।

অন্যদিকে, সিডিপিও দপ্তর এলাকায় জমি দখলের অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এব্যাপারে সিডিপিও দপ্তর থেকে থানায় লিখিত অভিযোগ জমা করেছে। সেখানেও পুলিশ কাজ আটকে দিয়েছে। এলাকার কোথাও বিশেষ করে জমি দখলের বিষয়ে দলের কেউ জড়িত থাকলে অভিয়োগের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। চোপড়া থানার আইসি বিনোদ গজমের বলেন, সিডিপিও দপ্তর থেকে জমি দখল সংক্রান্ত অভিযোগ জমা পড়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে সংশ্লিষ্ট জায়গায় কোনওরকম নির্মাণকাজ যাতে কেউ না করে এব্যাপারে পুলিশ নজর রাখছে।