শতবর্ষ প্রাচীন গ্রন্থাগারেই চলে অসামাজিক কাজ

120

আলিপুরদুয়ার: নজরদারি ও সংস্কারের অভাবে আলিপুরদুয়ারের শতবর্ষ প্রাচীন গ্রন্থাগারের পরিত্যক্ত ভবন হয়ে উঠছে অসামাজিক কাজকর্মের আড্ডাখানা। এই ঘটনার নিন্দা শুরু হয়েছে বিভিন্ন মহলে।

আলিপুরদুয়ার জেলা অতিরিক্ত গ্রন্থাগার, যেটির আরেক নাম সপ্তম এডওয়ার্ড লাইব্রেরি। ১৯১৭ সালে স্থাপিত হয়। গ্রান্থাগার স্থাপিত হওয়ার শতবর্ষ পেরিয়ে গিয়েছে অনেকদিন আগে। গ্রন্থাগারের নিজেস্ব জমিতেই ভবন রয়েছে। পাশেই আবার রয়েছে পুরোনো কাঠের ভবন। ওই কাঠের ঘরেই আগে গ্রন্থাগার ছিল। পরবর্তীতে পুরো কংক্রিটের ঘর নির্মাণ করা হয়। অভিযোগ, পুরোনো কাঠের ঘরই হয়ে উঠেছে নেশার আড্ডাখানা। সন্ধ্যার পর ওই ঘর এবং সামনের মাঠে মদের আসর বসে বলে অভিযোগ। এ নিয়ে আলিপুরদুয়ার থানার আইসি অনিন্দ্য ভট্টাচার্য বলেন, ‘রাতে ওই জায়গায় পুলিশ টহলের ব্যবস্থা করা হবে। যাতে কোনও অসামাজিক কাজ না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখা হবে।’

- Advertisement -

লোক সংস্কৃতি গবেষক বঙ্গরত্ন প্রমোথ নাথ বলেন, ‘একশো বছরের বেশি পুরোনো ওই গ্রন্থাগার। সংস্কার হয়ে গ্রন্থাগার আবার নিজের পুরোনো রূপে ফিরে আসুক সেটাই চাইব।’ জেলা গ্রন্থাগারিক শিবনাথ দে বলেন, ‘গ্রন্থাগারের এখন যে ভবন রয়েছে তার পাশেই মডেল লাইব্রেরি তৈরির চেষ্টা রয়েছে। একসময় কাজও শুরু হয়েছিল। পরে কাজটি আটকে যায়। আবার কাজ শুরুর করানোর চেষ্টা চলছে।’