পুরাতন মালদার বিডিও করোনায় আক্রান্ত

1078

পুরাতন মালদা: মালদা জেলায় করোনা ক্রমশ মারাত্মক আকার নিচ্ছে। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ও ডেপুটি সিএমওএইচ-১ এর পর এবার পুরাতন মালদার বিডিওর শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ল। জ্বর কাশি, গলাব্যথা সহ করোনার একাধিক উপসর্গ তাঁর শরীরে দেখা গিয়েছে বলে স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে।

বুধবার বিডিও-র লালার নমুনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। পুরাতন মালদার বিডিওর শরীরে যে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে সেটা স্বাস্থ্যকর্তারাও স্বীকার করে নিয়েছেন। বুধবার রাতেই তাঁকে পুরাতন মালদার কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ব্লক স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, গত কয়েকদিন ধরেই বিডিওর জ্বর ও শ্বাসকষ্টের মতো উপসর্গ নিয়ে দেখা গিয়েছিল। গত প্রায় এক সপ্তাহ ধরে তিনি নিজেকে হোম কোয়ারান্টিনে রেখেছিলেন। তবে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁর নমুনা পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বুধবার সেই রিপোর্ট পজিটিভ আসে বলে স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে খবর।

- Advertisement -

দ্রুত তাঁকে পুরাতন মালদার কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নারায়ণপুরে বিডিও অফিসের ক্যাম্পাসে কোয়ার্টারে থাকতেন তিনি। তাঁর সঙ্গে পরিবারের বাকি যাঁরা থাকতেন তাঁদের ওই কোয়ার্টারেই আইসোলেশনে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি বিডিও-র সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের চিহ্নিত করে লালার নমুনা সংগ্রহ করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই বিডিও-র সংস্পর্শে আসা ছয়জনের নমুনা নেওয়া হয়েছে। এমনকি পুরাতন মালদার জয়েন্ট বিডিওকেও হোম কোয়ারান্টিনে থাকতে বলা হয়েছে।

করোনা সংক্রান্ত নানা কাজ খতিয়ে দেখতে একাধিকবার বিভিন্ন এলাকায় যেতে হয়েছে বিডিওকে। এমনকি বহু মানুষের সঙ্গে বৈঠক করতে হয়েছে। অন্য কোনও সংক্রামিত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসে বিডিও আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।

পুরাতন মালদার বিডিও অফিস চত্বরকে কনটেনমেন্ট জোন হিসেবে ঘোষণা করা হবে বলে খবর। এদিকে মালদায় যেভাবে করোনার সংক্রমণ বাড়ছে তাতে আতঙ্কে রয়েছেন জেলার বাসিন্দারা। এর আগে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। এবার সেই তালিকায় যোগ হল বিডিও নাম। জেলায় সংক্রমণ রোখাটাই এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ প্রশাসনের কাছে।