পুজোর দিনগুলিতে জঙ্গল লাগোয়া এলাকায় টহল দেবেন বনকর্মীরা

178

ময়নাগুড়ি: শুরু হয়েছে বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজো। করোনা সংক্রমণের কারণে এবার পুজো  জাঁকজমক করে না হলেও সকলেই মেতে উঠবেন উৎসবের আনন্দে। উৎসবের দিনগুলিতে চোরাশিকার ও লোকালয়ে বন্যপ্রাণীর বেরিয়ে আসা আটকাতে নজরদারি চালাবেন ময়নাগুড়ি ব্লকের গরুমারা বন্যপ্রাণী বিভাগের রামশাই মোবাইল স্কোয়াডের কর্মীরা। জঙ্গল লাগোয়া বিভিন্ন এলাকায় তাঁরা টহল দেবেন।

রামশাই বাজার ছাড়াও জঙ্গল ঘেঁষা কালামাটি, চড়াইমহল, শিবগারা, ঝাড়মাটিয়ালি, বারোহাতি, কালীপুর সহ বিভিন্ন এলাকায় সন্ধ্যার পর প্রায়ই হাতি বেরিয়ে আসে। মাঝেমধ্যে বেরিয়ে আসে গণ্ডারও। বন্যপ্রাণীদের জঙ্গলে ফেরত পাঠাতে স্কোয়াডকে ছুটতে হয় রাতভর। পুজোর দিনগুলিতে বন্যপ্রাণীর আক্রমণে যাতে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্যই রাতে টহল দেবেন বনকর্মীরা।

- Advertisement -

রামশাই মোবাইল স্কোয়াডের রেঞ্জার বিশ্বজ্যোতি দে জানান, তাঁরা সাধারণ মানুষকে সচেতন করছেন। জঙ্গল লাগোয়া এলাকায় বেশি রাত পর্যন্ত যাতায়াত করতে না বলা হয়েছে। পুজোর দিনগুলিতে যাতে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, সেজন্য বনকর্মীরা যথাসাধ্য চেষ্টা করবেন।

গরুমারা বন্যপ্রাণী বিভাগের ডিএফও নিশা গোস্বামী জানান, বনকর্মীরা সজাগ আছেন। নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।