নতুন বছরের প্রথম দিনেই রসিকবিলে মানুষের ঢল

214

বক্সিরহাট: নতুন বছরের প্রথম দিনেই মানুষের ঢল নামল রসিকবিলে। একদিকে স্কুল কলেজ দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ। করোনার আবহে বাড়ির শিশু থেকে বৃদ্ধ সকলেই ছিল গৃহবন্দী। তাই নববর্ষে ঘর ছেড়ে বেড়িয়ে পড়লেন সকলে। প্রকৃতির টানে জল, জঙ্গলের সাথে হরিণ, বাঘ ময়ুর, ঘড়িয়াল পাইথন, গন্ধগোকুল দেখতে ভিড় জমান রসিকবিলে। সঙ্গে বাড়তি পাওনা শীতের অতিথি পরিযায়ী পাখির কলতান।

শুক্রবার সকাল হতেই উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলার সঙ্গে প্রতিবেশী অসম রাজ্য থেকেও প্রচুর পর্যটক এদিন রসিকবিল মিনি জু-তে আসেন। বেলা বাড়তেই হাজার হাজার মানুষের ভিড়ে রীতিমত মেলার চেহারা নেয় রসিকবিল মিনি জু। এদিন রসিকবিলের প্রবেশ পথে টিকিট কাউন্টারের সামনে টিকিট কেটে ভেতরে ঢোকার জন্য দীর্ঘ লাইন চোখে পড়ে। ভিড় সামলাতে বনকর্মীদের পাশাপাশি বক্সিরহাট থানার পুলিশ ও র‍্যাফ বাহিনীকে নামানো হয়। জেলা বনাধিকারীক সঞ্জিত কুমার সাহা নিজে উপস্থিত থেকে এদিন রসিক বিলে তদারকি করেন।

- Advertisement -

বনদপ্তরের কোচবিহারের বনাধিকারিক সঞ্জিত কুমার সাহা জানান, এদিন প্রায় দশ হাজারের উপর পর্যটক মিনিজুর ভেতরে টিকিট কেটে ঢোকেন। জু’র ভেতরে প্রত্যেক যাতে মাস্ক ব্যবহার করেন তার জন্য বন কর্মীরা বিশেষ নজরদারী করেন। এছাড়া জু’কে দুষণমুক্ত রাখতে প্রবেশদ্বারে পটাশ মিশ্রিত জলের ব্যবস্থা করা হয়েছিল ফুটবাথের জন্য। জুর ভেতরে খাবার খাওয়াও নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। এছাড়া জু এবং তার সামনের এলাকাতেও কাউকে এদিন পিকনিক করতে দেওয়া হয়নি। পরিবেশ নির্মল রাখতে পর্যটকেরাও এদিন বনকর্মীদের সাথে সহযোগিতা করেন।