ফের করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু রায়গঞ্জে

265

বিশ্বজিৎ সরকার, রায়গঞ্জ: ফের করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হল এক বৃদ্ধের। বুধবার সকালে প্রবল জ্বর, শ্বাসকষ্ট নিয়ে প্রথমে করণদিঘি গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি হন। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় তাঁকে। আইসোলেশন বিভাগে রেফার করতেই মৃত্যু হয় ওই বৃদ্ধের। এরপর মৃতদেহ রেখে দেওয়া হয় রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে। হাসপাতাল সূত্রে খবর, মৃত ওই বৃদ্ধের নাম শ্রীবাস বিশ্বাস (৭০)। বাড়ি করণদিঘি থানার টুঙ্গীদীঘি এলাকার সাদিপুর গ্রামে। পেশায় মৎস্য ব্যবসায়ী।

মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, লালার নমুনা নেওয়া হয়েছে। রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত মৃতদেহ দেওয়া যাবে না। মৃতের ভাইপো দেবব্রত বিশ্বাস বলেন, ‘মৃতদেহ আমাদের দেয়নি। টেস্ট নেগেটিভ হলে কাল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার মৃতদেহ আমাদের হাতে তুলে দেবে।’

- Advertisement -

এদিন উত্তর দিনাজপুর জেলায় আরও ৬৭ জন করোনা আক্রান্ত হলেন। তাদের মধ্যে রায়গঞ্জের দমকলকর্মী, চাকুলিয়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের নার্সিং পদে কর্মরত। তার বাড়ি রায়গঞ্জ শহরের তুলসীতলা এলাকায়। এদিকে রায়গঞ্জের বন্দর এলাকার বাসিন্দা ৩০ বছরের বধূ করোনা আক্রান্ত হয়ে কোভিড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। রায়গঞ্জ থানার শীতগ্রাম গ্রাম পঞ্চায়েতের করোনা আক্রান্ত এক গৃহবধূকে আনতে গিয়ে প্রবল বাধার মুখে পড়তে হয় স্বাস্থ্যকর্মীদের। পজিটিভ রিপোর্ট আসা সত্ত্বেও আক্রান্ত এক ব্যক্তিকে বাড়ি থেকে কোভিড হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করাতে এই বিপত্তি। স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্মীরা এদিন অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে ওই ব্যক্তির বাড়িতে গিয়েছিলেন। কিন্তু সেই ব্যক্তি ও তার পরিবারের সদস্যরা স্বাস্থ্য দপ্তরের কাজে বাধা দেন। অ্যাম্বুলেন্সের চেপে হাসপাতালে যেতে অস্বীকার করে বলে অভিযোগ।

জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক রবীন্দ্রনাথ প্রধান বলেন, ‘এই ধরনের একাধিক ঘটনা ঘটেছে। হোম কোয়ারান্টিনে থাকার পাশাপাশি এলাকার স্বাস্থ্যকর্মীদের দেখভালের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে, বেড নেই। বাধ্য হয়ে রায়গঞ্জের কর্ণজোড়া এলাকায় ক্রেতা সুরক্ষা আদালতের নয়া ভবনে কোয়ারান্টিন সেন্টারকে রাতারাতি কোভিড হাসপাতালে রুপান্তর করল জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর।

গতকাল থেকে কোভিড আক্রান্ত রোগীদের সেখানে ভর্তি করা হচ্ছে। যে হারে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে তা নিয়ে চিন্তায় স্বাস্থ্য কর্তারা। গত কয়েক দিনে উত্তর দিনাজপুর জেলাজুড়ে মারাত্মক হারে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। ভাইরাসের চেন ভাঙতে গত ১৫ তারিখ থেকে রায়গঞ্জ শহর জুড়ে শুরু হয়েছে লকডাউন। কিন্তু লকডাউনের মধ্যেই রেকর্ড সংক্রমণ ধরা পড়েছে উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জের শহর ও শহরতলীর এলাকায়। গত পাঁচ দিনে রায়গঞ্জ শহর ও শহরতলির এলাকায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩০ জন।

এরমধ্যে এদিন আক্রান্ত হয়েছেন ৫ জন। রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের নোডাল অফিসার বিপ্লব হালদার বলেন, ‘সমস্ত রিপোর্ট স্বাস্থ্যদপ্তরে পাঠানো হয়েছে। স্বাস্থ্যদপ্তরের এক কর্তা বলেন, বুধবার ৬৫ করোনা আক্রান্তের হদিস পাওয়া গিয়েছে। উপসর্গহীন থাকায় হেমতাবাদের সারি হাসপাতলে অথবা কর্ণজোড়া ক্রেতা সুরক্ষা আদালতের নয়া ভবনের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করানো হচ্ছে।