পরিবহণে রাজ্যের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে গোরু পাচার করতে গিয়ে ধৃত ১

95

ফাঁসিদেওয়া, ২১ মেঃ রাজ্যে কার্যত লকডাউন চলছে। বিশেষ কয়েকটি ক্ষেত্র ছাড়া বন্ধ প্রায় সবরকম পরিবহণ। এরইমাঝে গোরু পাচার করতে গিয়ে একজন গ্রেপ্তার হল। গোপন সূত্রের খবরের ভিত্তিতে নাকা তল্লাশি চালিয়ে পাচারের আগে গোরু সহ ১ জনকে বিধাননগর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ গ্রেপ্তার করল। ধৃত সুবোধ শাহ বিহারের বাসিন্দা বলে খবর।

শুক্রবার ফাঁসিদেওয়া ব্লকের বিধাননগর মুরালীগঞ্জ চেক পোস্টে নাকা তল্লাশি চালানোর সময় পুলিশ একটি সন্দেহজনক কনটেইনার আটক করে। কনটেইনারে তল্লাশি চালাতেই ২৮টি গোরু উদ্ধার হয়। পুলিশ গোরু বোঝাই কনটেইনার এবং চালককে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। চালকের কাছে লাইভস্টক নিয়ে যাওয়ার বৈধ কোনও নথি ছিল না বলে জানা গিয়েছে। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে চালক গোরু পাচারের কথা স্বীকার করে নিয়েছে।

- Advertisement -

এরপরই পুলিশ চালককে এই পাচারে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার করে। পাশাপাশি, উদ্ধার হওয়া গোরু খোয়ারে পাঠানো হয়েছে। পাচারে ব্যবহৃত কনটেইনারটিও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বিহার থেকে গোরু কনটেইনারে বোঝাই করে ইসলামপুর, বিধাননগর হয়ে অসমের বাংলাদেশ সীমান্তে পাচারের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। এদিন ধৃতকে শিলিগুড়ি মহকুমা আদালতে তোলা হয়েছে।

করোনা সংক্রমণ রুখতে রাজ্য জুড়ে প্রায় সমস্ত রকমের পরিবহণ পরিষেবা বন্ধ থাকলেও, কিভাবে বিধাননগরে গোরু গাড়িটি এসে পৌঁছাল, তা নিয়ে নানা জল্পনা তৈরি হয়েছে। অপরদিকে, এই পরিস্থিতিকে হাতিয়ার করে আর কোনও পাচারচক্র সক্রিয় হয়ে উঠেছে কিনা সেটিও এখন পুলিশের মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।