উত্তর ধূমপাড়ায় যুবককে পিষল দাঁতাল

155
প্রতীকী ছবি।

নাগরাকাটা: হাতির আক্রমণে মৃত্যু হল এক যুবকের। সোমবার গভীর রাতে নাগরাকাটা ব্লকের আংরাভাসা ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের উত্তর ধূমপাড়ায় ঘটনাটি ঘটেছে। মৃতের নাম উকিল রায় (২১)। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। বনদপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে, মৃতের পরিবার সরকারি নিয়ম অনুযায়ী ক্ষতিপূরণ পাবেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার সন্ধ্যায় খেরকাটার জঙ্গল থেকে দুটি হাতি উত্তর ধূমপাড়ায় ঢোকে। রাতের দিকে হাতি দুটি এলাকায় তাণ্ডব শুরু করে। এরপর গ্রামবাসীরা সেগুলিকে জঙ্গলে ফেরৎ পাঠানোর চেষ্টা করতেই আচমকা একটি দাঁতাল উকিলকে তাড়া করে। তাঁকে সেখানেই পিষে দেয় হাতিটি। ঘটনাস্থলেই উকিলের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে বনকর্মীরা গিয়ে দেহ উদ্ধার করেন। এদিকে, ওই রাতেই হাতির আক্রমণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এলাকার দু-তিনটি বাড়ি। এতে ক্ষোভ ছড়িয়েছে। স্থানীয় সূত্রের খবর, এনিয়ে ওই গ্রামে গত ১০ বছরে হাতির হানায় ১০-১২ জনের মৃত্যু হল।

- Advertisement -

স্থানীয় বাসিন্দা শ্যমল দাস বলেন, ‘বন দপ্তর উদাসীন। এলাকাটি কোন রেঞ্জের আওতাধীন, তা নিয়েই বছরভর চাপানউতোর চলতে থাকে। যার ফল ভুগতে হচ্ছে বাসিন্দাদের। হাতির হানায় প্রাণ হারাচ্ছেন একের পর এক মানুষ। আমরা এর বিহিত চাই। হাতির হানা রুখতে দ্রুত পদক্ষেপের দাবি জানাচ্ছি। ‘

এবিষয়ে বন্যপ্রাণ শাখার বিন্নাগুড়ি স্কোয়াডের রেঞ্জার শুভাশিস রায় বলেন, ‘ঘটনাটি দুঃখজনক। হাতির হামলা রুখতে আমাদের প্রচেষ্টার কোনও খামতি নেই। মৃতের পরিবার সরকারি নিয়ম অনুযায়ী ক্ষতিপূরণ পাবেন।‘ বন দপ্তরের অনারারি ওয়াইল্ড লাইফ ওয়ার্ডেন সীমা চৌধুরি বলেন, ‘উত্তর ধূমপাড়ায় ওয়াচ টাওয়ার তৈরির বিষয়টি বন দপ্তরে জানানো হচ্ছে।‘