কোচবিহার জেলায় একহাজার কমিউনিটি টয়লেট তৈরি হচ্ছে

ফাইল ছবি

গৌরহরি দাস, কোচবিহার : কোচবিহার জেলাকে পুরোপুরি নির্মল করে তুলতে এবার গ্রামীণ এলাকার প্রতিটি হাটবাজারে কমিউনিটি টয়লেট তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোচবিহার জেলা পরিষদ। মিশন নির্মল বাংলা প্রকল্পে এক হাজারটি কমিউনিটি টয়লেট তৈরি করা হবে। জেলার বিভিন্ন ব্লকে ইতিমধ্যে কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। চলতি বছরের মধ্যেই এই প্রকল্প শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে। প্রশাসন সূত্রে খবর, কোচবিহার সদর মহকুমায় ২২১টি, মেখলিগঞ্জ মহকুমায় ১১৯টি, দিনহাটায় ২৯৭টি, মাথাভাঙ্গায় ১৫৪টি ও তুফানগঞ্জ মহকুমায় ২০৯টি কমিউনিটি টয়লেট তৈরি হবে।

মিশন নির্মল বাংলা প্রকল্পে এর আগে গ্রামীণ এলাকার প্রতিটি বাড়িতে শৌচাগার গড়ে তোলার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছিল। প্রশাসনের সেই পরিকল্পনা কার্যত সফল হয়েছে। এমনকি কোচবিহারকে নির্মল জেলা ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, প্রায় প্রতিটি বাড়িতে শৌচাগার তৈরি হলেও গ্রামীণ এলাকার হাটবাজারগুলিতে সেই অর্থে কোনও শৌচাগার নেই। ফলে হাটবাজারে এসে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ব্যাবসায়ী ও ক্রেতাদের বাইরে খোলা জায়গাতেই শৌচকর্ম করতে হচ্ছে। সেইজন্যই এবার হাটবাজারে কমিউনিটি টয়লেট গড়ে তোলার দিকে জোর দেওয়া হয়েছে। তুফানগঞ্জ-১ ব্লকের চিলাখানা-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসিন্দা মজিদুল হক বলেন, হাটবাজারে শৌচাগার না থাকায় খুবই সমস্যা হয়। বাধ্য হয়ে রাস্তার ধারে শৌচকর্ম সারতে হয়। কমিউনিটি টয়লেট তৈরি হলে সেই সমস্যা দূর হবে। আরেক বাসিন্দা তপন বর্মন বলেন, কমিউনিটি টয়লেট হচ্ছে এটা অবশ্যই ভালো খবর। তবে সেগুলি যাতে ঠিকঠাক রক্ষণাবেক্ষণ করা হয় সেদিকে প্রশাসনকে নজর রাখতে হবে।

- Advertisement -

কোচবিহার জেলা পরিষদের অতিরিক্ত কার্যনির্বাহী আধিকারিক তথা অতিরিক্ত জেলা শাসক রামকৃষ্ণ মালি বলেন, জেলাকে পুরোপুরি স্বচ্ছ করে তুলতেই গ্রামীণ হাটবাজারে এ ধরনের কমিউনিটি টয়লেট করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রতিটি টয়লেট তৈরি করতে দুই লাখ টাকা করে খরচ হবে। জেলা প্রশাসনের তদারকিতেই এই কাজ হবে। জেলা শাসক পবন কাদিয়ান বলেন, একহাজারটি কমিউনিটি টয়লেট তৈরির কাজ এখন শুরু হয়েছে। চার-পাঁচমাস আগেও কোচবিহারের প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েতে দুটি করে ২৫৬টি কমিউনিটি টয়লেট তৈরির কাজ শুরু হয়েছিল। সেগুলি তৈরি করতেও প্রতিটির জন্য দুই লাখ টাকা করে খরচ হয়েছে, যেগুলির কাজ এখন শেষের পথে। এছাড়াও আরও ১০০টি আইসিডিএস টয়লেট তৈরি করা হবে। এই টয়লেটগুলি করতে ৮০ থেকে ৯০ হাজার টাকা করে লাগবে। সবমিলিয়ে গোটা জেলা পুরোপুরি নির্মল হয়ে উঠবে।