চ্যাংরাবান্ধা চেকপোস্টে বাসচালক নিগ্রহের ঘটনায় গ্রেপ্তার এক

377

চ্যাংরাবান্ধা: কোচবিহার জেলার চ্যাংরাবান্ধা পুলিশ চেকপোস্টে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার বাসচালক নিবারণ কর্মকারকে মারধরের ঘটনায় এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ।

যদিও ওই ব্যক্তির নাম জানা যায়নি। মেখলিগঞ্জ থানার পুলিশ কর্তারাও মুখ খোলেননি। কোচবিহার জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহম্মদ সানা আখতার বলেন, ‘ওই চেকপোস্ট থেকে এক বাসচালক গ্রামে ঢুকে পড়েছিলেন। সেখানেই তাঁকে মারধর করা হয়। এই ঘটনায় আমরা একজনকে গ্রেফতার করেছি।’

- Advertisement -

নিগৃহীত বাসচালক হরিরামপুরের বাসিন্দা। তিনি খড়িবাড়ি থেকে চ্যাংরাবান্ধা হয়ে বারবিশা যাচ্ছিলেন।বৃহস্পতিবার রাত দুটো নাগাদ চ্যাংরাবান্ধা চেকপোস্টে পৌঁছানোর পর শৌচকর্ম করার জন্য রাস্তার ধারে খোলা মাঠের দিকে গিয়েছিলেন। কিন্তু শৌচকর্ম করার আগেই তাকে বাঁশ দিয়ে পেটানো হয়। এতে তিনি জখম হন।

খবর পেয়ে অন্য বাসচালকরা কয়েকজনকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেন বলে নিবারণবাবু জানান। তিনি বলেন, কয়েকজনকে পুলিশের হাতে তুলে দেবার পর তাঁরা বুঝতে পারেন যারা নিগ্রহের ঘটনায় যুক্ত তাঁদের মধ্যে একজন মেখলিগঞ্জ থানার এক সিভিক ভলান্টিয়ারের নিকটাত্মীয়। যিনি রাতে ওই চেকপোস্টে কর্মরতও নাকি ছিলেন। তাই পুলিশ ওঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে তৎক্ষণাৎ ছেড়ে দেয় বলেও অভিযোগ করেন।

অন্য একটি বাসে বাসকর্মীরা রাতেই তাঁকে জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। বর্তমানে তিনি জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মঙ্গলবার জখম বাসচালককে দেখে এসেছেন মেখলিগঞ্জের বিধায়ক তথা উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার ভাইস চেয়ারম্যান অর্ঘ্য রায়প্রধান। তিনি ঘটনার নিন্দা করেন।