অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম করে তোলা আদায়ের অভিযোগ, ধৃত ১

122

কালচিনি: তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যাপাধ্যায়ের নাম করে টাকা তোলার অভিযোগে এক যুবককে গ্ৰেপ্তার করল কালচিনি থানার পুলিশ। ধৃত জলপাইগুড়ির বাসিন্দা দীপায়ন দত্ত। বুধবার রাতে মেন্দাবাড়ির একটি রিসোর্ট থেকে ওই যুবককে গ্ৰেপ্তার করা হয়। বৃহস্পতিবার ধৃতকে আলিপুরদুয়ার মহকুমা আদালতে পেশ করা হয়েছে। তদন্তের পুলিশ ধৃতকে নিজেদের হেপাজতে নিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ১৯  বছর বয়সি ওই যুবকের বিরুদ্ধে কালচিনি থানায় অভিযোগ জানান কয়েকজন বাসিন্দা। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে ওই যুবককে গ্ৰেপ্তার করে পুলিশ। কালচিনি থানার ওসি অনির্বান মজুমদার জানান, প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে ওই যুবক কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত নয়। সাধারণ মানুষকে প্রতারণা করে টাকা তোলার জন্যই প্রতারনার ফাঁদ পেতেছিল ওই যুবক। তবে এখনও পর্যন্ত কতজন প্রতারিত হয়েছে তা এখনও স্পষ্ট নয়। সেক্ষেত্রে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

- Advertisement -

জানা গিয়েছে, ওই যুবক নিজেকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ প্রমানিত করতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খোলে। সেখানে বন্ধুর তালিকায় থাকা চাকরিপ্রার্থীদের জানায় অভিষেক বন্ধ্যোপাধ্যায়কে বলে রাজ্য সরকারের অধীনে যে কোনও দপ্তরে সে চাকরি করিয়ে দিতে পারবে। সেক্ষেত্রে মোটা টাকা দাবিও করে সে। সম্প্রতি মেন্দাবাড়ির একটি রিসোর্টে বসেই কালচিনি ব্লকে প্রতারনার জাল বিস্তারের প্রচেষ্টা শুরু করে অভিযুক্ত। ইতিমধ্যে কয়েকজনের কাছে থেকে কিছু টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলেও খবর। তবে, যুবকের কথায় অসঙ্গতি থাকায় দুই যুবক কালচিনি থানায় অভিযোগ জানান।

তদন্তকারী অফিসাররা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন, শুধু চাকরির টোপ নয়। নিজেকে ক্যান্সার আক্রান্ত রোগী বলে উল্লেখ করে আবার কখনও নিজের স্ত্রী ক্যানসারে আক্রান্ত বলে চিকিৎসার জন্য টাকা তুলত ওই যুবক। যদিও পুলিশের অনুমান ওই যুবক এখনও বিয়েই করেনি। সাধারণ মানুষকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলতেই আসাঢ়ে গল্প বানাত সে।

অন্যদিকে দলের শীর্ষ নেতার নাম ভাঙিয়ে এভাবে প্রতারনার ছক কষায় তৃণমূলের তরফে ওই যুবকের কড়া শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে। তৃণমূলের কালচিনির ব্লক সভাপতি পাশাং লামা বলেন, ‘ওই যুবক তৃণমূলের সঙ্গে কোনওভাবেই যুক্ত নয়।’