কংগ্রেস বিধায়কের তৃণমূলে যোগ

419

কলকাতা: কিছুদিন ধরেই কানাঘুষো চলছিল উত্তর ২৪ পরগনার নবগঠিত বসিরহাট পুলিশ জেলার অন্তর্গত বাদুড়িয়ার কংগ্রেস বিধায়ক আব্দুর রহিম কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেবেন। সেই কানাঘুষোকে সত্যি করে শনিবার তিনি তৃণমূল ভবনে গিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দলে যোগ দিলেন। অপরদিকে এদিনই বিজেপির মহিলা মোর্চার প্রাক্তন সহ-সভাপতি মৌমিতা বসু চক্রবর্তী বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন।

দলীয় বিধায়ক আব্দুর রহিমের দলত্যাগের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধরি বলেন, ওই বিধায়কের তৃণমূলে যোগ দেওয়ার কথা কিছুদিন যাবত শোনা যাচ্ছিল। যার যাওয়ার ছিল তিনি চলে যাওয়ায় দলের পক্ষে ভালোই হল। তিনি জানান, রহিমকে কিছুদিন যাবত বোঝাবার চেষ্টা করেছিলেন তাঁর বাবা একজন পাক্কা কংগ্রেসি ছিলেন এবং সমগ্র বসিরহাটে তাঁর বিপুল পরিচিতি রয়েছে। সেই কথাটুকু মাথায় রেখে উনি যাতে দলের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা না করেন। কিন্তু তিনি সেই কথায় আমল দেননি। সম্ভবত কিছু বাধ্য-বাধকতার জন্যই উনি দলত্যাগ করেছেন। তবে তার দলত্যাগ এর দরুণ দলের কোনও ক্ষতি হবে না। তাঁর দাবি, আগামী নির্বাচনে বাদুড়িয়া থেকে তাদের দলে প্রার্থীই জয়ী হবেন। উল্লেখ্য, এর আগে বসিরহাট উত্তরের বিধায়ক রফিকুল ইসলাম সিপিএম ছেড়ে তৃণমলে যোগ দিয়েছিলেন।

- Advertisement -

অপরদিকে বিজেপির মহিলা মোর্চার প্রাক্তন সহ-সভাপতি মৌমিতা বসু চক্রবর্তীর দলত্যাগের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে বিজেপি রাজ্য কমিটির অন্যতম সহ-সভাপতি জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন, সম্ভবত তৃণমূলের পক্ষ থেকে ভয় দেখিয়েই তাকে দলত্যাগ করানো হয়েছে। তিনি আরও বলেন, বহু জায়গাতেই দেখা যাচ্ছে তৃণমূলের পক্ষ থেকে আমাদের দলের নেতাকর্মীদের হয় মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে, নয়ত মারধরের ভয় দেখানো হচ্ছে। যারা ওই ভীতির কাছে আত্মসমর্পণ করছেন, তারা দল ছেড়ে যাচ্ছেন। সেই সঙ্গে তিনি এও বলেন, ২/১ জন দল ছেড়ে বেরিয়ে গেলেও প্রতিদিন ঝাঁকে ঝাঁকে তৃণমূলের কর্মী ও নেতারা বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন। কাজেই মৌমিতার দল ছেড়ে চলে যাওয়াটা কোনও বড় ব্যাপার নয়।