বিহারের ভোট প্রচার শুরু মোদি-রাহুলের

285

পটনা: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধি শুক্রবার প্রথম বিহারের ভোট প্রচারে অংশ নিয়েছেন। এদিন সাসারামে প্রথম সভাতেই আরজেডি-কংগ্রেস জোটের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন মোদি। অন্যদিকে, রাহুল গান্ধি আজ নওয়াদার হিসুয়া এবং ভাগলপুরের কহালগাঁওয়ে ‘মহাগঠবন্ধন’-প্রার্থীদের সমর্থনে প্রচার করবেন। তাঁর সঙ্গে উপস্থিত থাকবেন আরজেডি নেতা তথা জোটের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী তেজস্বী যাদব এবং বিহার ভোটের ভারপ্রাপ্ত এআইসিসি পর্যবেক্ষক শক্তিসিন গোহিল।

এদিকে এদিন সাসারামের জনসভায় মোদি বলেন, ‘‘নীতীশ কুমার বিহারের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার আগে অপরাধ এবং দুর্নীতির শিকার ছিল।’’ রাজ্যে কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলাতেও নীতীশ সরকার সাফল্য পেয়েছে। নীতীশজি না থাকলে বিহারে করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হত, দাবি প্রধান মন্ত্রীর।

- Advertisement -

বিরোধীদের নিশানা করে জম্মু ও কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বাতিলের প্রসঙ্গে মোদি বলেন, ‘‘৩৭০ ধারা কবে উঠবে সকলে সেই অপেক্ষায় ছিলেন। কিন্তু যারা বলেছিলেন, ক্ষমতায় এলে ওই ধারা আবার ফিরিয়ে আনা হবে। তাঁরা এখন বিহারে ভোট চাওয়ার সাহস পাচ্ছেন না।’’

করোনা পরিস্থিতির কারণে বিহারের মাত্র ১২টি বিধানসভা কেন্দ্র এলাকায় প্রধানমন্ত্রী মোদি সভা করবেন। সেই সভাগুলিতে মোদির বক্তৃতা ভার্চুয়ালি বিহারের ২৪৩টি কেন্দ্রের ভোটদাতাদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে। এদিকে আজ সাসারামের পাশাপাশি ভাগলপুর এবং গয়ার ডেহরির জনসভায় বক্তব্য রাখবেন প্রধানমন্ত্রী। ওই দুই সভায় মুখ্যমন্তী নীতীশ কুমার উপস্থিত থাকবেন। এদিকে মোদির প্রতিটি জনসভার বক্তব্য পার্শ্ববর্তী ২০টি বিধানসভা কেন্দ্রে জায়ান্ট স্ক্রিনে প্রচারিত হবে।