উত্তরবঙ্গে তৃণমূলে রদবদল শীঘ্রই, জেলায় যাচ্ছেন পর্যবেক্ষকরা

934

স্বরূপ বিশ্বাস, কলকাতা : ২০২১-এর ভোটের আগে উত্তরবঙ্গের সব জেলায় সাংগঠনিক রদবদল চাইছেন পিকে। তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তিনি বিশেষ করে জেলা সংগঠনে নতুন মুখ তুলে আনার পরামর্শ দিয়েছেন। তিনি চান, রদবদল হোক আগামী দুই থেকে তিন মাসের মধ্যে। দলের পরামর্শদাতা প্রশান্ত কিশোরের এই সুপারিশের পরই উত্তরবঙ্গের সব জেলা সংগঠনের সর্বশেষ অবস্থার রিপোর্ট চেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এজন্য দলের পর্যবেক্ষকদের সংশ্লিষ্ট জেলায় পাঠানো হচ্ছে বলে দলীয় সূত্রের খবর। করোনা পরিস্থিতিতে ট্রেনে যাতায়াত সম্ভব নয় বলে সড়কপথে পর্যবেক্ষকদের জেলায় জেলায় যাওযার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

উত্তরবঙ্গের জেলায় জেলায় দলীয় সংগঠন নিয়ে বরাবরই ভাবনা আছে নেত্রীর। এর আগে হাজারো পদক্ষেপ করে সামাল দিতে পারেননি বিশেষ করে শিলিগুড়ি সহ দার্জিলিং ও কোচবিহারের মতো জেলায়। অন্যান্য জেলাতেও প্রচুর সমস্যা। ২০২১-এর ভোটের লক্ষ্যে প্রস্তুতির আগেই উত্তরবঙ্গের ভাবনা তাঁকে বেগ দিচ্ছে। গত লোকসভা ভোটের ফলের অভিজ্ঞতা মোটেই তাঁর কাছে সুখকর নয়। এবার তাই আগাম পিকে ও তাঁর টিম আইপ্যাকের পরামর্শ চাইছেন তিনি। এব্যাপারে পিকে-কে সাহায্য করেছেন দলের দুই সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও সুব্রত বকসি। অভিষেক অনেকদিনই জেলার সংগঠনে রদবদল চাইছেন। সুব্রত বকসি নিজে একাধিকবার আগে কোচবিহার গিয়ে বৈঠক করেও দলের সমস্যা মেটাতে পারেননি। নেত্রীও কলকাতায় একাধিক দলীয় সভায় সরাসরি জেলা নেতাদের নাম করে হুঁশিয়ারি দেওযার পরও সমস্যা মেটেনি।

- Advertisement -

তৃণমূল নেত্রীকে পিকে পরামর্শ দিয়েছেন, পুরোনো মুখের বদল চাই। আগাগোড়া বদল সম্ভব না হলেও নতুন মুখ তুলে আনতে হবে। খোলনলচে বদল করতে গেলে ভোটের আগে ঝুঁকি নেওযা হতে পারে। তাই অন্তত চোখে পড়ার মতো গ্রহণযোগ্য নতুন মুখ উত্তরবঙ্গের জেলা সংগঠনে আনতেই হবে। জেলাবাসীর কাছেও এই সঙ্গে বার্তা পেঁছোবে।