ওয়াশিংটন, ১ অগাস্ট : ওসামা বিন লাদেনের ছেলে ও আল কায়দা নেতা হামজা বিন লাদেন মারা গিয়েছে বলে জানাল আমেরিকা। পেন্টাগন সূত্রে হামজার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে কোথায়, কীভাবে লাদেনপুত্র মারা গিয়েছে তা সম্পর্কে কিছু জানায়নি মার্কিন প্রশাসন। হামজার মৃত্যুর খবর প্রথম প্রকাশ্যে আনে মার্কিন সংবাদ চ্যানেল এনবিসি নিউজ। কিন্তু প্রথমে এই ঘটনার বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি মার্কিন গোয়েন্দারা। পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানান, বিষয়টি তিনি জানেন কিন্তু কোনো মন্তব্য করবেন না। এরপরই মার্কিন প্রশাসন সূত্রে হামজার মৃত্যুর কথা স্বীকার করা হয়। তবে তার মৃত্যুর পিছনে ওয়াশিংটনের ভূমিকা রয়েছে কী না তা স্পষ্ট নয়।

পাকিস্তানের অ্যাবোটাবাদে ওসামা বিন লাদেনকে খতম করার পর মার্কিন নেভি সিলের হাতে ধরা পড়েছিল লাদেনের তিন স্ত্রী। কিন্তু হামজাকে তখন খুঁজে পাওয়া যায়নি। ওসামার তৃতীয় বউ খাইরিয়া সাবারের সন্তান ২৯ বছরের হামজার মাথার দাম ১০ লক্ষ মার্কিন ডলার ধার্য করেছিল পেন্টাগন। ২০১৭ সালে আমেরিকা হামজাকে আন্তর্জাতিক জঙ্গির তকমা দেয়। ২০১৮ সালে শেষবার গোপন ডেরা থেকে ভিডিয়োর মাধ্যমে সৌদি আরব প্রশাসনকে হুমকি দিয়েছিল হামজা। আরব উপসাগরীয় অঞ্চলে রক্তের নদীর বইয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিল সে। লাদেন মারা যাওয়ার পর আল কায়দার শীর্ষ নেতা হিসাবে উঠে আসে হামজার নাম। তবে এখনও আল কায়দার মাথা আয়মান আল-জাওয়াহিরি। মার্কিন হামলাতেই যদি হামজার মৃত্যু হয়, তবে তা ট্রাম্প প্রশাসনের বড়ো সাফল্য হবে বলে মনে করছে আন্তর্জাতিক মহল।