প্রয়োজনের চেয়ে দিল্লি বেশি অক্সিজেন চাওয়ায় ১২ রাজ্যে ঘাটতি: রিপোর্ট

127
ছবি : সংগৃহীত

নয়াদিল্লি: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে প্রয়োজনের তুলনায় চারগুণ বেশি অক্সিজেন চাওয়ার অভিযোগ উঠল দিল্লি সরকারের বিরুদ্ধে। সুপ্রিম কোর্টের গঠিত অক্সিজেন অডিট কমিটির রিপোর্ট অনুযায়ী, কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ে যা প্রয়োজন তার চেয়ে চারগুণ বেশি অক্সিজেন চেয়েছিল দিল্লি। চলতি বছরের এপ্রিল-মে মাসে, দিল্লির একাধিক হাসপাতালে অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা যায়। দিল্লি হাইকোর্টের হস্তক্ষেপের পর কেন্দ্রীয় সরকার দিল্লির অক্সিজেন বরাদ্দ বাড়ায়। এদিকে দিল্লির অক্সিজেনের বরাদ্দ বাড়াতে গিয়ে অন্য রাজ্যগুলির বরাদ্দ কমাতে হয়েছিল। অডিট কমিটির রিপোর্টে বলা হয়েছে, সেইসময় দিল্লিতে দৈনিক প্রায় ৩০০ মেট্রিক টন অক্সিজেনের প্রয়োজন থাকলেও দিল্লি সরকার চাহিদা বাড়িয়ে ১২০০ মেট্রিক টন করেছিল। দিল্লির অতিরিক্ত চাহিদার জন্য অন্য ১২টি রাজ্যে অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দেয়। দিল্লি সরকারের তরফে জানানো হয়েছিল, স্বাভাবিক অবস্থায় তাদের দৈনিক প্রায় ৩০০ মেট্রিক টন অক্সিজেনের প্রয়োজন হয়। দ্বিতীয় ঢেউয়ে তা বেড়ে ৭০০ মেট্রিক টন ছাড়িয়ে যায়। এই নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করা হলে শীর্ষ আদালত এই পরিমাণ অক্সিজেন দিতে নির্দেশ দেয়। একসময় তারা আরও বেশি অর্থাৎ দৈনিক প্রায় ১২০০ মেট্রিক টন অক্সিজেন দাবি করে।

- Advertisement -

প্রসঙ্গত, দেশে অক্সিজেনের জোগান ও বিতরণের বিষয়টি খতিয়ে দেখতে জাতীয় টাস্ক ফোর্স গঠন করেছিল সুপ্রিম কোর্ট। অক্সিজেন টাস্ক ফোর্সের রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, সেইসময় দিল্লির হাসপাতালগুলিতে অক্সিজেন ট্যাংকগুলিতে ৭৫ শতাংশ পর্যন্ত ভর্তি থাকায় ট্যাংকার খালি করা যায়নি। কয়েকটি হাসপাতালে ভুল তথ্য দেওয়ায় এমনটা হয়েছিল বলেও টাস্ক ফোর্সে উল্লেখ করা হয়েছে।