সীমান্তে পাকিস্তানের ড্রোন, পাল্টা জবাবে গুলি জওয়ানদের

412

নয়াদিল্লী: ফের জম্মুর আন্তর্জাতিক সীমান্তে পাকিস্তানি ড্রোনের দাপাদপি। সেটি লক্ষ্য করে গুলি চালায় সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনী (বিএসএফ)। এরপর সেটি পাকিস্তানের দিকে চলে যায়। কিন্তু কি উদ্দেশ্যে পাকিস্তানের ড্রোনের এদেশের সীমান্তে আগমন তা এখন খতিয়ে দেখছে ভারতের সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনী।

এদিন বিএসএফের তরফে জানানো হয়েছে, শনিবার সন্ধ্যায় জম্মু জেলার আর্নিয়া সেক্টরে ১৯৮ কিলোমিটারের আন্তর্জাতিক সীমান্ত বরাবর পাকিস্তানের একটি গোয়েন্দা ড্রোন নজরে আসে। বিএসএফের ইনস্পেক্টর জেনারেল এনএস জামওয়াল জানান, ড্রোন লক্ষ্য করে কয়েকবার গুলি চালান জওয়ানরা। তারপর তা পাকিস্তানের অভিমুখে চলে যায়। ড্রোনের খোঁজে এলাকায় তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

- Advertisement -

তারইমধ্যে শনিবার ভারতীয় সেনাপ্রধান জেনারেল এম এম নারভানে জানান, শীতের আগমনের ফলে বিভিন্ন পাসে তুষার জমে অনুপ্রবেশ করা অসম্ভব হয়ে যাবে। সেজন্য মরিয়া হয়ে অনুপ্রবেশের নয়া উপায় খুঁজছে জঙ্গিরা। তিনি বলেন, ‘সেই কারণেই ওরা দক্ষিণ দিকে সরে যাচ্ছে এবং আন্তর্জাতিক সীমান্ত বরাবর সুড়ঙ্গ-সহ দিয়ে নীচু এলাকা দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে।’

উল্লেখ্য, এখন জম্মু ও কাশ্মীরে জঙ্গি, অস্ত্র, গোলাগুলি এবং মাদক ঢোকাতে ড্রোন এবং আন্তঃসীমান্ত সুড়ঙ্গের ব্যবহার করছে পাকিস্তান। গত ১৭ নভেম্বর নাগরোটার বান টোল প্লাজায় যে চার জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গিকে খতম করা হয়েছিল, তারাও সাম্বা সেক্টরের একটি আন্তঃসীমান্ত সুড়ঙ্গ দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ করেছিল। ভারতীয় ভূখণ্ডের প্রায় ১৬০ মিটার ভিতর পর্যন্ত এসেছিল।