বিশেষভাবে সক্ষমের পাশে দাঁড়াল পঞ্চায়েত সমিতি

143

চোপড়া: বিশেষভাবে সক্ষম বছর পঁয়ত্রিশের এমএ পাশ মাসুদ আলম অর্থাভাবে শাক সবজি বিক্রি করতেন। এবার তাঁর পাশে দাঁড়ালেন চোপড়া পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যরা। চোপড়া ব্লকের ভৈষপিটা এলাকার বাসিন্দা মাসুদ আলম। ছয় ভাইবোন সহ বাবা-মাকে নিয়ে অভাবের সংসার। মাধ্যমিক পাশ করার পর থেকে অন্তত চতুর্থ শ্রেণির একটি সরকারি চাকরির চেষ্টা করে যাচ্ছেন তিনি। ইতিমধ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে দরবারও করেন। কিন্তু লাভ হয়নি। শারীরিক সমস্যার কারণে গৃহস্থালির কাজ কিংবা ভারী কোনও কাজ করতে পারেন না। অবশেষে অভাবের দায়ে গ্রামের হাটে সবজি বিক্রি করতে শুরু করেন।

মাসুদ বলেন, ‘চাকরির জন্য সবাইকে বলা হয়েছে। সম্প্রতি পঞ্চায়েত সমিতির দয়ায় আপাতত অস্থায়ী একটি কাজে যোগ দিয়েছি। কাগজ কলমের কাজ করতে আমার বেশ ভালোই লাগে। স্থায়ী কাজ না পাওয়া পর্যন্ত আপাতত এখানেই থাকার ইচ্ছে আছে।‘ চোপড়া পঞ্চায়েত সমিতি সভাপতি মহম্মদ আজহারউদ্দিন বলেন, ‘কিছুদিন আগে উত্তরবঙ্গ সংবাদে মাসুদের ব্যাপারে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। বিষয়টি জানার পর থেকেই মাসুদের জন্য কোনরকম একটি কর্মসংস্থানের ব্যাপারে মাথায় ছিল। এবার পঞ্চায়েত সমিতির উদ্যোগে অস্থায়ীভাবে কাজে নিয়োগ করা হয়েছে।‘

- Advertisement -