হাতির হানায় আতঙ্ক মালবাজারে, ক্ষতিগ্রস্ত দোকান-বাড়ি

181

মালবাজার: ডুয়ার্স এবং লাগোয়া পাহাড়ি এলাকাগুলিতে ধারাবাহিকভাবে হাতির উপদ্রব চলছে। বুধবার বৃষ্টির মধ্যে গভীর রাতে একটি দলছুট দাঁতাল হাতি মাল ব্লকের মীনগ্লাস চা বাগানের ডালিঙকোট ডিভিশনে উপদ্রব করে। হাতির আক্রমণে একটি দোকান, দুটি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কোনরকমে হাতির আক্রমণ থেকে রক্ষা পান প্রত্যেকে। ডুয়ার্স লাগোয়া কালিম্পং জেলার গরুবাথান ব্লকের লোয়ার ফাগু চা বাগানে হাতির উপদ্রবে ছায়াগাছ, চারা চা গাছের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বন বিভাগ হাতির উপদ্রব ঠেকাতে টহলদারি জারি রেখেছে।

মীনগ্লাস চা বাগানের ডালিঙকোট ডিভিশনের বাসিন্দা অজয় গোয়ালা বলেন, ‘আমরা ছোট দোকান চালাই। আচমকাই গতকাল রাতে দাঁতাল দোকানের সামনে চলে আসে। সমস্ত খাদ্যসামগ্রী তছনছ করে। কোনভাবে টিনের বাক্স বাজাতে শুরু করি। তখন হাতিটি দোকানের সামনে থেকে চলে যায়।‘ মীনগ্লাস চা বাগানের শ্রমিক কল্যাণ আধিকারিক অনির্বাণ সেন বলেন, ‘আমরা হাতির আক্রমনের খবর পেয়েছি। কালিম্পং জেলার গরুবাথান ব্লকের লোয়ার ফাগু চা বাগানে হাতির উপদ্রবের ঘটনা ঘটেই চলেছে। দলছুট দু তিনটি হাতি ভুট্টাবাড়ি বনাঞ্চল থেকে চলে এসেছে।‘ বাগানের ম্যানেজার সুজয় মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘ক্রমাগত হাতির উপদ্রব আমাদের দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। হাতির আক্রমণে বাগানের চা গাছের পাশাপাশি ছোট চারা গাছও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আমরা বনবিভাগকে সার্বিক পরিস্থিতির বিষয়ে জানিয়েছি।‘ গরুবাথান এলাকার নেওড়া রেঞ্জের আধিকারিক বিকাশ সুনদাস বলেন, ‘হাতির উপদ্রব রোধে আমাদের রাত্রিকালীন টহল জারি রয়েছে।‘ মালবাজারের স্কোয়াডের ওয়ার্ডেন বলেন দীপেন সুব্বা বলেন, ‘আমরা হাতির আক্রমণের বিষয়টি খোঁজ নিচ্ছি।‘

- Advertisement -