ডানা মেলে উড়াল প্যারালিম্পিকের

টোকিও : ওঁদের কারও হাত নেই, কারও পা। কেউ ক্রাচ নিয়ে হাঁটেন, কারও ভরসা হুইলচেয়ার। তবে একটা মিল আছে, ওঁদের সকলের ডানা আছে। স্বপ্ন দেখার ডানা, স্বপ্ন পূরণের ডানা। এই বিশ্বের আর পাঁচজনের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে অলিম্পিকের পদক জেতার ডানা।

মঙ্গলবার বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে এবারের টোকিও প্যারালিম্পিক গেমস শুরু হল। গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের থিম ছিল উই হ্যাভ উইংস। এদিন অলিম্পিকে অংশ নেওয়া ১৬২টি প্রতিনিধি দলের পতাকা উপস্থিত ছিল ফাঁকা গ্যালারির সামনে। তার মধ্যে ছিল উদবাস্তু শরনার্থীদের পতাকা। দেশে চলা অব্যবস্থার জন্য সুযোগ পাওয়া দুই অ্যাথলিট যেতে না পারলেও এদিন টোকিওয় হাজির ছিল আফগানিস্তানের পতাকাও। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির প্রধান টমাস বাখ, প্যারালম্পিক কমিটির সভাপতি অ্যান্ড্রু পার্সনস ছাড়া হাজির ছিলেন মার্কিন উপ রাষ্ট্রপতি কমলা হ্যারিসের স্বামী ডগলাস এমহফ।

- Advertisement -

এবারের গেমসে মোট ৪,৪০৩ জন অ্যাথলিট অংশ নিচ্ছেন। এরমধ্যে ৫৪ জন ভারতীয়। রিও প্যারা গেমসে মোট ৪,৩২৮ জন অ্যাথলিট উপস্থিত ছিলেন। এবারের গেমসে অন্যতম প্রধান আকর্ষণ ব্লেড জাম্পার মার্কাস রেম। ১৪ বছর বয়সে এক দুর্ঘটনায় তাঁর ডান পায়ের হাঁটুর নীচের অংশ বাদ যায়। এই জার্মান তারকা এবছরের শুরুতে ৮.৬২ মিটার লাফিয়েছেন। গত সাতটি গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে লং জাম্পে এর থেকে বড় লাফ দেননি কোনও অ্যাথলিট। এমনকি এবারের টোকিও গেমসে সোনাজয়ী লংজাম্পার ৮.৪১ মিটার লাফিয়েছেন। অর্থাৎ পিছিয়ে নেই প্যারা অ্যাথলিটরাও।

এরমধ্যেই এদিন ভারতীয় পতাকা বাহকের নাম বদলে গেল গেমস শুরুর ঠিক আগে। আগেই ঘোষণা করা হয়েছিল, বর্ষীয়ান প্যারা অ্যাথলিট মারিয়াপ্পান থাঙ্গাভেলু জাতীয় পকাতা হাতে হাঁটবেন। কিন্তু টোকিও যাওয়ার পথে তাঁর এক বিদেশি সহযাত্রীর করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ায় তাঁকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়। গত ছয়দিনে তাঁর প্রতিটি করোনা পরীক্ষার ফলই নেগেটিভ এসেছে। তা সত্বেও গেমসের আয়োজকদের তরফে এই ভারতীয় হাই জাম্পারকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে না যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। এরপরই শেষ মুহূর্তে পতাকা হাতে নেওয়ার সুযোগ পেলেন শটপাটার টেক চাঁদ।