পরিবারকে বন্দী করে ডি মারিয়ার বাড়িতে ডাকাতি

প্যারিস : প্রেমের শহর হঠাৎই আতঙ্কের শহর অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার জন্য।

রবিবার রাতে ভয়াবহ ডাকাতি হয় প্যারিস সাঁ জাঁর এই ফুটবলারের বাড়িতে। সেসময় পার্ক ডি প্রিন্সেস স্টেডিয়ামে ন্যান্তেসের বিরুদ্ধে খেলতে ব্যস্ত ছিলেন তিনি। বিষয়টি জানাজানি হতেই তাঁকে মাঠ থেকে তুলে বাড়ি পাঠানোর ব্যবস্থা করে ক্লাব ম্যানেজমেন্ট। পরবর্তীতে জানা যায়, দলের আরেক ফুটবলার মার্কুইনহোসের বাড়িতেও দুষ্কৃতীরা হানা দিয়েছে। দুক্ষেত্রেই পরিবারের অন্যদের বন্দী করে লুটপাট চালানো হয়। ইতিমধ্যেই প্যারিস পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। গত ফেব্রুয়ারিতে পিএসজির আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মাওরো ইকার্ডির বাড়িতেও চুরি হয় বলে খবর। এমন অবস্থায় প্যারিসে ফুটবলারদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। পুলিশের ধারণা, ফুটবলার সেসময় ম্যাচ খেলতে ব্যস্ত থাকবেন, তা জেনেই দুষ্কৃতীরা হানা দিয়েছে।

- Advertisement -

দিন কয়েক আগেই ২০২২ পর্যন্ত প্যারিসে থাকার চুক্তিতে সই করেছেন ডি মারিয়া। রবিবার ম্যাচের ৬০ মিনিট নাগাদ দেখা যায় পিএসজির টিম ডিরেক্টর স্ট্যান্ড থেকে কোচ মাউরিসিও পচেত্তিনোর সঙ্গে উত্তেজিতভাবে কথা বলছেন। এরপরেই দ্রুত ডি মারিয়াকে তুলে লিয়ান্দ্রো পারদেসকে নামানো হয়। মাঠ থেকে ওঠার পর সরাসরি সাজঘরের দিকে হাটা দেন তিনি, সঙ্গে ছিলেন পচেত্তিনো। এরপরই জানা যায়, ডাকাত পড়েছে তাঁর বাড়িতে। সেসময় বাড়িতে ডি মারিয়ার স্ত্রী জর্জেলিনা কার্ডোসো এবং কন্যা মিয়া ছিলেন।

ডাকাতি করার পাশাপাশি দুষ্কৃতীরা জর্জেলিনাকে অপহরণও করেছে বলে খবর ছড়ায়। তবে পরে পুলিশ ও পিএসজি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, অপহরণের খবর ভুয়ো। এর আগে ২০১৫ সালে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে খেলার সময়ও এই আর্জেন্টাইন তারকার বাড়িতে ডাকাতি হয়। সেই ঘটনা তাঁর ইংল্যান্ড ছাড়ার ক্ষেত্রে অনুঘটকের কাজ করেছিল। রবিবার রাতে ডাকাতি হয় ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্কুইনহোসের প্যারিসের বাড়িতেও ডাকাতি হয়। তাঁর বাবা-মাকে বন্দী রেখে লুটপাট চালায় দুষ্কৃতীরা। যদিও ম্যাচ শেষ হওয়া পর্যন্ত মার্কুইনহোস মাঠেই ছিলেন।

শুধু মাঠের বাইরেই নয়, মাঠের ভেতরেও বিপর্যস্ত পিএসজি। রবিবারের ম্যাচে অবনমনের আওতায় থাকা ন্যান্তেসের কাছে ২-১ গোলে হেরেছে। জুলিয়ান ড্রাক্সলারের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল তারা। ম্যাচ শেষে পচেত্তিনো বলেন, আমি কোনও অজুহাত দিতে চাই না। তবে এটা সত্যি যে ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে ফুটবলাররা মানসিক চাপে পড়ে যায়। এটা এমন একটা খবর যা সবাইকে উদ্বিগ্ন করেছিল। ২৯ ম্যাচে ৬০ পয়েন্ট নিয়ে লিগ ওয়ানে দুনম্বরে রয়েছে পিএসজি।