সংবর্ধিত হলেন নাগরাকাটার পারুল

179

নাগরাকাটা, ১ জানুয়ারিঃ মেয়ে বৌমার বিয়ে দিয়ে নিঃশব্দে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন তিনি। নাগরাকাটার স্কুল পাড়ার গৃহবধূ পারুল রায়ের সেই কাহিনী গত ২২ নভেম্বর উত্তরবঙ্গ সংবাদে প্রকাশিতও হয়। সমাজের কাছে নিজের অজান্তেই বড় বার্তা পৌঁছে দিয়ে পারুল দেবী সংবর্ধিত হলেন। ওই এলাকারই একটি অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র তাঁকে সংবর্ধনা জানিয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার নাগরাকাটার ৮৮ নম্বর অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের সহায়িকা মৌসুমী ভট্টাচার্য তাঁকে পুষ্পস্তবক ও চাদর পড়িয়ে সংবর্ধিত দেন । অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অঙ্গনওয়াড়ি প্রকল্পের সুপারভাইজার সরোজা মঙ্গের সহ এলাকার বাসিন্দারা। করোনার স্বাস্থ্যবিধি মেনেই অনুষ্ঠানের আযোজন করা হয়।

- Advertisement -

মৌসুমী দেবী বলেন, পারুল রায় হয়তো খুব বেশী লেখাপড়া শিখতে পারেননি। তবে, তিনি যা করেছেন, তা আমাদের সবার কাছেই শিক্ষনীয়। সেকারনেই তাঁকে সাধ্যমতো এই সন্মাননা প্রদান। নিজের বিধবা কন্যা ও পুত্রবধূকে বিয়ে দিয়ে, তাঁদের নতুন জীবনে প্রবেশ করিয়েছেন একাধারে মা ও শাশুড়ি মা পারুল।