দুয়ারে সরকার শিবিরে উন্নত স্বাস্থ্য পরিষেবার দাবি

222

শালকুমারহাট: দুয়ারে সরকার কর্মসূচিতে এবার উন্নত স্বাস্থ্য পরিষেবার দাবি উঠল। শনিবার আলিপুরদুয়ার ১ ব্লকের শালকুমার ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের লাল্টুরাম হাই স্কুলে আয়োজিত হয় দুয়ারে সরকার কর্মসূচি। সেখানকার কাউন্টারে গিয়ে স্থানীয় মুন্সিপাড়া প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের পরিকাঠামোগত উন্নয়নের দাবিতে স্মারকলিপি জমা দেয় শালকুমারহাট নাগরিক মঞ্চ। স্থানীয়দের এই দাবি স্বাস্থ্য দপ্তরের কাছে পৌঁছে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন ব্লক প্রশাসনের কর্তারা। পরবর্তীতে কর্মসূচিতে উপস্থিত আলিপুরদুয়ারের বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তীকেও একই দাবি জানানো হয়।

শালকুমার ১ ও শালকুমার ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রায় পঞ্চাশ হাজার মানুষের প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য মূল ভরসা হল কালীবাড়িতে অবস্থিত মুন্সিপাড়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র। অভিযোগ, দীর্ঘদিনের পুরোনো ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এখনও সেরকম পরিকাঠামোগত উন্নতি হয়নি। বর্তমানে একজন চিকিৎসক ও একজন নার্স রয়েছেন সেখানে। স্বাস্থ্যকেন্দ্রে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত শুধু বহির্বিভাগের চিকিৎসা পরিষেবা পেয়ে থাকেন বাসিন্দারা।দুপুরের পর বা রাতে কেউ অসুস্থ্ হয়ে পড়লে চিকিৎসার জন্য ছুটতে হয় ২৫ কিমি দূরে পাঁচকোলগুড়ি ব্লক হাসপাতাল কিংবা ৪০ কিমি দূরে থাকা আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে। সেক্ষেত্রে উন্নত স্বাস্থ্য পরিসেবার দাবিতে এদিন শালকুমারহাট নাগরিক মঞ্চের তরফে মুন্সিপাড়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে দিনরাত চিকিৎসা পরিষেবা, ন্যূনতম দশ শয্যা চালু করা, দু’জন চিকিৎসক ও আরও নার্স নিয়োগ, অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা চালু সহ পরিকাঠামোগত উন্নয়নের দাবিতে স্মারকলিপি জমা দেওয়া হয়। মঞ্চের তরফে তপন রায়, দিলীপ রায়, রঞ্জিত রায় জানান, এলাকার মানুষের দাবি মেনেই এদিন প্রশাসনের কর্তাদের হাতে স্মারকলিপি তুলে দেওয়া হয়েছে।

- Advertisement -

বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী বলেন, ‘এদিন মানুষের সঙ্গে মিশে অনেক অভাব, অভিযোগ শুনেছি। চটজলদি অনেকের সমস্যার সমাধানও করে দিয়েছি। আর স্বাস্থ্যকেন্দ্রের বিষয়টি আগেও বাসিন্দারা জানিয়েছেন। এখন এই বিষয়টি মুখ্যমন্ত্রীকে জানাব।’

এ প্রসঙ্গে আলিপুরদুয়ার-১ এর বিডিও অমরজ্যোতি সরকার বলেন, ‘স্বাস্থ্যকেন্দ্র নিয়ে বাসিন্দাদের দাবিপত্র আমি এখনও পাইনি। পেলে সেটি স্বাস্থ্য দপ্তর ও জেলা প্রশাসনের কাছে ফরওয়ার্ড করে দেওয়া হবে।’