কুচলিবাড়ি সীমান্তে দুই দেশের মানুষের মিলন মেলা

424

মেখলিগঞ্জ, ২৮ অক্টোবরঃ নিরাপত্তা জোরদার করতে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে দেওয়া হয়েছে কাঁটাতারের বেড়া। কিন্তু এই বেড়াও যে দুই বাংলার মানুষের মনে বাঁধা সৃষ্টি করতে পারেনি সেটা সোমবার দেখা গেল কোচবিহার জেলার কুচলিবাড়ি গ্রামপঞ্চায়েতের ভেদুটারি এলাকায়। প্রতিবছর কালীপুজোর পরদিন দু’দেশে বসবাসকারী প্রিয়জনদের সঙ্গে দেখা করতে সীমান্তে আসেন দুই প্রান্তের মানুষ। এবারও দু’পারের মানুষ তাঁদের প্রিয় মানুষদের কাছে পেয়ে আবেগ ধরে রাখতে পারেননি। প্রিয়জনদের কাছে পেয়ে খুশি রাজগঞ্জের মেহবুব আলম, কুচলিবাড়ির জ্যোতিবিকাশ রায়, ওপার বাংলার সুশান্ত রায়, ফিরোজা বিবির মতো আরও অনেকে। জ্যোতিবিকাশবাবু জানান, সোশ্যাল মিডিয়ায় বাংলাদেশের সুশান্ত রায়ের সঙ্গে তাঁর বন্ধুত্ব হয়। কিন্তু দেখা করার সুযোগ হচ্ছিল না। কারণ আলাদা দুটি দেশ হওয়ায় রয়েছে নিয়মকানুনও। তাই এদিন সুযোগ পেয়েই কাঁটাতারের বেড়ার দু’পাশ থেকেই দুজনে করমর্দন এবং বার্তালাপ করতে পারায় খুবই ভালো লাগল। বাংলাদেশে থাকা মামা রফিক আহমেদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন মেহবুব আলম। মেহবুববাবু বলেন, ‘অনেকদিন পর মামাকে সামনে দেখতে পেয়ে খুব আনন্দ হচ্ছিল।’ আর বন্দুক হাতে এইসব ঘটনার সাক্ষী থাকলেন সীমান্ত প্রহরার দায়িত্বে থাকা বিএসএফ জওয়ানরা। স্থানীয়রা জানান, প্রতিবছরই কালীপুজোর পরদিন সীমান্তের ওই এলাকায় দুই বাংলার মানুষের মিলনের দৃশ্য দেখা যায়। যার ব্যতিক্রম ঘটেনি এবারও।