র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা কেন্দ্র খোলার অনুমতি মাল মহকুমায়

177

চালসা: পর্যটন ব্যবসায়ীদের দাবিমত পর্যটকদের জন্য র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট কেন্দ্র খোলার অনুমতি মিলল। বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসনের তরফে জলপাইগুড়ি(সদর) ও মাল মহকুমার মোট ১১টি র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট কেন্দ্র খোলার কথা জানানো হয়েছে। এই কেন্দ্রগুলো থেকে পর্যটকরা হোটেল বা রিসোর্টে ঢোকার আগে তাদের করোনা পরীক্ষা করাতে পারবেন। শুক্রবার গরুমারা টুরিজম ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের তরফে মূর্তিতে সাংবাদিক বৈঠক করে জেলা প্রশাসনের ওই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান। সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সম্পাদক দেবকমল মিশ্র, সহ সম্পাদক শেখ জিয়াউর রহমান প্রমুখ।

বৈঠকে তাঁরা জানান, পর্যটকদের জন্য নতুন বিধিনিষেধ চালু হওয়ায় ফের একবার পর্যটন ব্যবসা মার খাওয়ার সম্ভাবনা ছিল। আরটিপিসিআর টেস্ট রিপোর্টের ক্ষেত্রে জটিলতা অনেক এমনটাই দাবি করেছিলেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা। এই জটিলতা কাটিয়ে পর্যটকরা তাদের ভ্রমণের পরিকল্পনা বাতিল করেছিলেন। এই সমস্যার সমাধানে সমস্ত প্রক্রিয়াকে সরল করার উদ্দেশ্যে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করানোর দাবি জানানো হয়েছিল।

- Advertisement -

করোনার সংক্রমণ রুখতে গত ১৪ জুলাই জেলা প্রশাসনের তরফে একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়। সেখানে বলা হয় জলপাইগুড়ি পর্যটন কেন্দ্রগুলিতে যারা থাকতে আসবেন তাদের হয় ভ্যাকসিনের দুটো ডোজ নেওয়া থাকতে হবে নয়তো ৪৮ ঘণ্টা আগের আরটিপিসিআর টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ থাকতে হবে। এতেই সমস্যায় পড়েন পর্যটন ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে পর্যটকরা।

ব্যবসায়ীদের দাবি, আরটিপিসিআর এর বদলে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের ব্যবস্থা করা হোক। বিষয়টি নিয়ে প্রথম আন্দোলন শুরু করে গরুমারা টুরিজম ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন। এই দাবির সমর্থনে সংগঠনের তরফে গত ১৫ জুলাই স্মারকলিপি দেওয়া হয় মেটেলির সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিককে। এরপর গত ১৬ জুলাই একই দাবি জানানো হয় জলপাইগুড়ি জেলা শাসকের কাছে। গত ১৯ জুলাই মাল এসডিও সংগঠনের কর্মকর্তাদের নিয়ে মাল মহকুমায় র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা কেন্দ্র করার বিষয়ে সভা করেন।