জিএসটির আওতায় পেট্রোপণ্য? মন্ত্রীর কথায় শুরু জল্পনা

73
ছবিঃ সংগৃহীত।

নয়াদিল্লি: তবে কি এবার পেট্রোল-ডিজেল জিএসটির আওতায় আসতে চলেছে, এমনই ইঙ্গিত মিলল কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রীর কথায়।

প্রায় প্রতিদিনই বাড়ছে জ্বালানি তেলের দাম। যার জেরে নাজেহাল হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। বাড়ছে ক্ষোভ। এদিকে, অসম, কেরল, পশ্চিমবঙ্গ, তামিলনাডু, পদুচেরিতে ভোট। ৫ রাজ্যে ভোটের আগে আমজনতার ক্ষোভ প্রশমনের চেষ্টা করছে কেন্দ্র।

- Advertisement -

এই পরিস্থিতিতে পেট্রোল-ডিজেলকে জিএসটির আওতায় আনার পক্ষে মঙ্গলবার সওয়াল করলেন কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান। তিনি এদিন জানান, কেন্দ্রীয় সরকার জ্বালানিতে জিএসটি চালুর পক্ষে। জিএসটির আওতায় এলে পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমার সম্ভাবনা রয়েছে। পেট্রোপণ্যে কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকার আলাদা করে শুল্ক নেয়। দুদিন আগেই জিএসটির পক্ষে সওয়াল করেছিলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবারও বেড়েছে জ্বালানি তেলের দাম। প্রতি লিটার পেট্রোল ও ডিজেলের দাম ৩৫ পয়সা করে বেড়েছে। এদিন কলকাতায় প্রতি লিটার পেট্রোলের দাম হয়েছে ৯১ টাকা ১২ পয়সা এবং ডিজেলের দাম ৮৪ টাকা ২০ পয়সা।

অন্যদিকে, দিল্লিতে প্রতি লিটার পেট্রোলের দাম বেড়ে হয়েছে ৯০ টাকা ৯৩ পয়সা। প্রতি লিটার ডিজেলের দাম হয়েছে ৮১ টাকা ৩২ পয়সা। আর মুম্বইয়ে প্রতি লিটার পেট্রোলের দাম হয়েছে ৯৭ টাকা ৩৪ পয়সা এবং ডিজেলের দাম ৮৮ টাকা ৪৪ পয়সা।

জ্বালানি তেলের লাগাতার মূল্যবৃদ্ধিতে চড়ছে ক্ষোভের পারদ। প্রতিবাদে পথে নেমেছে বিরোধীরা। এমন পরিস্থিতিতে জ্বালানি তেল জিএসটির আওতায় এলে দাম অনেকটাই কমবে। স্বস্তি পাবেন সাধারণ মানুষ।