মানবদেহে বসল শূকরের কিডনি! চিকিৎসাক্ষেত্রে উন্মুক্ত নয়া দিগন্ত

256

উত্তরবঙ্গ সংবাদ নিউজ ডেস্ক: অঙ্গ প্রতিস্থাপনে নয়া দিগন্ত। শূকরের কিডনি প্রতিস্থাপিত হল মানবদেহে।তা স্বাভাবিকভাবেই কাজ করছে। এখনও অবধি কোনও সমস্যা দেখা দেয়নি। কিডনি প্রতিস্থাপনের প্রক্রিয়াটি হয়েছে নিউ ইয়র্ক সিটির ‘এনওয়াইইউ ল্যাংগোন হেলথ’ হাসপাতালে।

জানা গিয়েছে, যে রোগীর শরীরে শূকরের কিডনি প্রতিস্থাপন করা হয়েছে তাঁর ‘ব্রেইন ডেড’ ছিল আগে থেকেই। লাইফ সাপোর্টে রাখা ছিল তাঁকে। ওই মহিলার কিডনিও নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। এই পরিস্থিতিতে পরিবারের সদস্যদের অনুমতিক্রমেই নষ্ট কিডনি বাদ দিয়ে শূকরের কিডনি প্রতিস্থাপনের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। এরপরই অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে কিডনি প্রতিস্থাপন করা হয়। তবে, অস্ত্রোপচারের আগে শূকরের জিন পালটে দেওয়া হয়েছিল বলেই খবর।

- Advertisement -

প্রাথমিকভাবে, রক্তনালীর সঙ্গে যুক্ত করে পেটের বাইরে রাখা হয়েছিল কিডনিটি। টানা তিনদিন পর্যবেক্ষণ চলে। অস্ত্রোপচারের নেতৃত্বে থাকা সার্জন ড: রবার্ট মন্টগোমারি কথায়, স্বাভাবিকভাবেই কাজ করেছে নয়া কিডনিটি।

হটকারী সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে এই অস্ত্রোপচার নয়। জানা গিয়েছে, চিকিৎসকদের একটি দল বিগত কয়েক দশক ধরে পশুর অঙ্গ মানবদেহে প্রতিস্থাপনের বিষয়ে কাজ করছিলেন। নিউইয়র্কের গবেষকদের কথায়, শূকরের জিন বিন্যাস থেকে আলফা-গ্যাল নামে একটি অংশ বাদ দেওয়া হয়েছে। পরিবর্তিত জিন থেকে নতুন শূকরের জন্ম দিয়ে সেটি বড় করে তোলা হয়। এরপরই অস্ত্রোপচারের পথে হাঁটেন চিকিৎসকরা।