প্রধানমন্ত্রী মহিলাদের সম্মান দিতে জানেন না: জুন মালিয়া

121

কলকাতা: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মহিলাদের সম্মান দিতে জানেন না। শুধু তাই নয়, তিনি যে ভাষায় কথা বলছেন তা দুর্ভাগ্যজনক। রবিবার তৃণমূল ভবনে আয়োজিত এক সাংবাদিক বৈঠকে ঠিক এভাবেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে দোষারোপ করলেন তৃণমূল প্রার্থী তথা অভিনেত্রী জুন মালিয়া। এদিন তৃণমূল ভবনে রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজা, জুন মালিয়া ও অনন্যা চক্রবর্তী হাজির হয়েছিলেন সাংবাদিক বৈঠকে। আর সেই সাংবাদিক বৈঠকে মূলত জুন মালিয়া ও অনন্যা চক্রবর্তী তীব্র ভাষায় বিজেপিকে আক্রমণ করেন।

জুন মালিয়া জানান, যেভাবে প্রধানমন্ত্রী রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হেনস্থার চেষ্টা করছেন এবং ‘দিদি-দিদি’ বলে যে কটাক্ষের সুরে ডাক দিচ্ছেন তার জবাব বাংলার মানুষ বিজেপিকে দেবে। তার মতে, পুরুষতান্ত্রিক সমাজে মহিলাদের অনেক কিছু সহ্য করতে হয়। তা বলে একজন জনপ্রতিনিধি তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে যদি ওই ভাষায় কথা বলা হয় তাহলে নব প্রজন্ম প্রধানমন্ত্রীর মতো ব্যক্তির কাছ থেকে কি শিখবেন বলেও প্রশ্ন তোলেন অভিনেত্রী। সেই কারণেই তিনি বাংলার আপামর জনগণকে ভেবেচিন্তে তাদের মত দান করার আবেদন জানান। তিনি আরও জানান, নির্বাচনি প্রচারে বেরিয়ে দেখেছেন গ্রাম বাংলার মানুষ এখনও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কতটা সন্মান করেন।

- Advertisement -

পাশাপাশি এবারের নির্বাচনে ‘খেলা হবে’ স্লোগানের ব্যাপারে মন্তব্য করতে গিয়ে জুন মালিয়া বলেন, ‘তাঁদের কাছে খেলা মানেই হল উন্নয়ন, নারী সুরক্ষা। আর বিজেপির কাছে খেলা মানে হলো রক্তের হোলি খেলা। তাই রাজ্যের মানুষ কোনটা বেছে নেবেন তা তারাই ঠিক করুন।

অপরদিকে অনন্যা চক্রবর্তী সাংবাদিকদের জানান, প্রধানমন্ত্রী যেভাবে মুখ্যমন্ত্রীরকে টোন কেটে কথা বলছেন সেটা কোন ধর্মের পরিচয় তা তার জানা নেই। তিনি বলেন যে, ধর্মের সুড়সুড়ি দিয়ে বিজেপি নির্বাচনে জিততে চাইছে। শুধু তাই নয় মহিলা সমাজকে দাবিয়ে রাখা, ছোট করাই হল বিজেপির মূল লক্ষ্য। যা কখনও বাংলার মূল্যবোধ নয়। বাংলার মহিলারা সবসময় মাথা উঁচু করে যেমন বেঁচেছেন, তেমনি তাঁরা সুরক্ষিত। তাই তাদের কোনওমতেই দাবিয়ে রাখা সম্ভব নয়।